রাত ১১:৪৮, শুক্রবার, ১৫ই ডিসেম্বর, ২০১৭ ইং
/ খেলাধুলা

সংযুক্ত আরব আমিরাতের শারজাহ ক্রিকেট স্টেডিয়ামে আজ থেকে শুরু হচ্ছে টি-টেন ক্রিকেট। টি-টেন ক্রিকেটে বাংলাদেশ থেকে সাকিব আল হাসান ও তামিম ইকবাল খেললেও মুস্তাফিজুর রহমানের খেলা হচ্ছে না। চার দিনের এই প্রতিযোগিতায় খেলার জন্য বাঁহাতি পেসারকে এনওসি (অনাপত্তিপত্র) দেয়নি বিসিবি।

টি-টেন ক্রিকেটে খেলতে বুধবার আরব আমিরাতে গেছেন সাকিব। একই দিন তামিম, মুস্তাফিজেরও যাওয়ার কথা ছিল।

কিন্তু তামিম যেতে পারেনি বিসিবির শুনানির মুখোমুখি হওয়ার কারণে। বিপিএল চলাকালে মিরপুরের উইকেট নিয়ে সমালোচনা করায় তামিমকে কারণ-দর্শানোর চিঠি দিয়েছিল বিসিবি।

আজ তামিমকে শুনানিতে ডেকেছিল বিসিবির শৃঙ্খলা কমিটি। শুনানি শেষে বিসিবির পরিচালক মাহবুব আনাম বলেছেন, ‘তামিমকে আজ আমরা শুনানিতে ডেকেছিলাম। ও ওর বক্তব্য দিয়েছে। সেদিন তামিম যেটা বলেছে, তার জন্য সে দুঃখ প্রকাশ করেছে।’

তামিম জানিয়েছেন, মিরপুরের উইকেট নিয়ে যে সমালোচনা তিনি করেছেন, সেটায় আরো মার্জিত ভাষা ব্যবহার করতে পারবেন।

তামিমের টি-টেন ক্রিকেটে খেলা নিয়ে কোনো শঙ্কা নেই। আজই তিনি আরব আমিরাতে উড়াল দেবেন। তবে আগে যেখানে তার তিনটি ম্যাচ খেলার কথা ছিল, এখন একটি কম খেলবেন। কারণ আজই তামিমের দল পাখতুনের একটি ম্যাচ আছে।

আজ রাতে ম্যাচ আছে সাকিবের দল কেরালা কিংসেরও। এই দলের বিপক্ষেই আজ বেঙ্গল টাইগার্সের হয়ে খেলার কথা ছিল মুস্তাফিজের। কিন্তু এনওসি না পাওয়ায় যেতে পারছেন না ‘দ্য ফিজ’।

দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে গোড়ালির চোটে পড়েছিলেন মুস্তাফিজ। ফলে বিপিএলে রাজশাহী কিংসের হয়ে প্রথম দুই লেগ খেলতে পারেননি। শেষ দিকে চার ম্যাচে খেলেছেন। সামনে বাংলাদেশের ব্যস্ত সূচি। টি-টেন ক্রিকেটে মুস্তাফিজকে খেলার অনুমতি দিয়ে তাই ঝুঁকি নিতে চায় না বিসিবি।

চার দিনের টেস্টে প্রতিদিন ৯৮ ওভার

ইতিহাসের প্রথম চার দিনের টেস্ট খেলবে দক্ষিণ আফ্রিকা ও জিম্বাবুয়ে, এটা জানা গিয়েছিল আগেই। এবার জানা গেল ম্যাচের নিয়মগুলোও।

আইসিসির প্লেয়িং কন্ডিশন অনুযায়ী, চার দিনের টেস্টে প্রতিদিন খেলা হবে ৯৮ ওভার, যা পাঁচ দিনের টেস্টের চেয়ে প্রতিদিন ৮ ওভার বেশি। চার দিনে মোট খেলা হবে ৩৯২ ওভার, যা পাঁচ দিনের টেস্টের চেয়ে ৫৮ ওভার কম।

প্রতিদিন খেলা হবে সাড়ে ৬ ঘণ্টা। পাঁচ দিনের টেস্টে প্রতিদিন খেলা হয় ৬ ঘণ্টা। প্রতি সেশন হতে পারবে কমপক্ষে ২ ঘণ্টা, আর সর্বোচ্চ আড়াই ২ ঘণ্টা। দিনের প্রথম দুই সেশনে খেলা হবে ২ ঘণ্টা ১৫ মিনিট করে, শেষ সেশন ২ ঘণ্টার।

ফলোঅনের নিয়মেও এসেছে পরিবর্তন। পাঁচ দিনের টেস্টে ফলোঅনের হিসাব হয় ২০০ রানে, চার দিনের টেস্টে তা হবে ১৫০ রানে। ঘরোয়া ও চার দিনের প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট এই নিয়মে হয়। অন্য সব নিয়ম পাঁচ দিনের টেস্টের মতোই থাকবে।

পোর্ট এলিজাবেথে দক্ষিণ আফ্রিকা ও জিম্বাবুয়ের চার দিনের টেস্ট ম্যাচটা দিবারাত্রির, খেলা হবে গোলাপি বলে। ফলে চা বিরতি হবে ২০ মিনিটের, ডিনার বিরতি ৪০ মিনিটের।

আগামী ২৬ ডিসেম্বর চার দিনের দিবারাত্রির টেস্টে মুখোমুখি হবে দক্ষিণ আফ্রিকা-জিম্বাবুয়ে। ম্যাচ শুরু হবে স্থানীয় সময় দুপুর দেড়টায়।

তথ্যসূত্র : ক্রিকইনফো।

আর্সেনাল-লিভারপুলের হোঁচট, সিটির নতুন রেকর্ড

প্রিমিয়ার লিগে আবারো হোঁচট খেয়েছে আর্সেনাল। ওয়েস্টহাম ইউনাইটেডের মাঠে গোলশূন্য ড্র করেছে আর্সেন ওয়েঙ্গারের দল।

লিগে এ নিয়ে টানা তিন ম্যাচে জয়হীন থাকল আর্সেনাল। ডিসেম্বরের শুরুতে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের কাছে হারের পর শেষ ম্যাচে সাউদাম্পটনের সঙ্গে ড্র করে ‘গানার’রা।

বুধবার হোঁচট খেয়েছে লিভারপুলও। নিজেদের মাঠ অ্যানফিল্ডে ওয়েস্ট ব্রমউইচ অ্যালবিওনের সঙ্গে তারাও আর্সেনালের মতো গোলশূন্য ড্র করেছে।

ম্যানচেস্টার শহরের দুই দল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ও ম্যানচেস্টার সিটি ঠিকই জয় তুলে নিয়েছে। ওল্ড ট্রাফোর্ডে বোর্নমাউথকে রোমেলু লুকাকুর একমাত্র গোলে হারিয়েছে হোসে মরিনহোর ইউনাইটেড।
 


অন্যদিকে অপ্রতিরোধ্য গতিতে ছুটে চলা সিটিজেনরা সোয়ানসি সিটিকে তাদের মাঠেই ৪-০ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে। জোড়া গোল করেছেন ডেভিড সিলভা। কেভিন ডি ব্রুইন ও সার্জিও আগুয়েরো করেছেন একটি করে গোল।

এই জয়ে দারুণ এক রেকর্ডও গড়েছে ম্যানচেস্টার সিটি। পেপ গার্দিওলা দল আগের ম্যাচে ইউনাইটেডকে হারিয়ে প্রিমিয়ার লিগে আর্সেনালের (১৪) টানা জয়ের রেকর্ডে ভাগ বসিয়েছিল। এবার সোয়ানসিকে হারিয়ে গড়ল নতুন রেকর্ড (১৫)। 

১৭ ম্যাচে ৪৯ পয়েন্ট নিয়ে লিগের পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে আছে ম্যানচেস্টার সিটি। ৩৮ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। ৩৫ ও ৩১ পয়েন্ট নিয়ে যথাক্রমে তিন ও চার নম্বরে আছে চেলসি ও টটেনহাম। লিভারপুল ৩১ পয়েন্ট নিয়ে পাঁচে ও আর্সেনাল ৩০ পয়েন্ট নিয়ে আছে সাতে।
 

আল জাজিরাকে হারিয়ে ফাইনালে রিয়াল

নির্ধারিত সময়ের খেলা শেষ হতে বাকি ৯ মিনিট। সংযুক্ত আরব আমিরাতের ক্লাব আল জাজিরার সঙ্গে তখন ১-১ গোলের সমতায় স্প্যানিশ জায়ান্ট রিয়াল মাদ্রিদ। সাইড বেঞ্চ থেকে উঠে বদলি হিসেবে মাঠে নামলেন গ্যারেথ বেল। আর মাঠে নামার প্রথম মিনিটে এবং বলে প্রথম ছোঁয়াতেই গোল করলেন ওয়েলস তারকা। তাতে আল জাজিরাকে ২-১ গোলে হারিয়ে ফিফা ক্লাব বিশ্বকাপের ফাইনালে উঠে গেল রিয়াল মাদ্রিদ।

আবুধাবির জায়েদ স্পোর্টস সিটি স্টেডিয়ামে বুধবার রাতে অনুষ্ঠিত সেমিফাইনালে ম্যাচের শুরু থেকেই আল জাজিরার রক্ষণভাগকে ব্যস্ত রেখেছিল রিয়াল মাদ্রিদ। কিন্তু লিডটা আর নিতে পারেনি ‘লস ব্লাঙ্কোস’রা।

আল জাজিরার গোলরক্ষক আলি কাশিফ অসাধারণ গোলকিপিংয়ে একাধিকবার হতাশ করেছেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো, করিম বেনজেমাদের। ম্যাচের প্রথম ১০ মিনিটে রোনালদো একাই অন্তত তিন গোল পেতে পারতেন। কিন্তু পর্তুগিজ তারকার তিনটি প্রচেষ্টাই রুখে দেন কাশিফ।

অবশেষে ২৩ মিনিটে কাশিফ দুর্গ ভেদ করতে পারে রিয়াল। ইস্কোর ক্রস থেকে হেডে আল জাজিরার জালে বল জড়ান বেনজেমা। কিন্তু রোনালদো আল জাজিরার ডিফেন্ডার মোহাম্মদ আইদকে ধাক্কা দেওয়ায় গোলটা বাতিল করে দেন রেফারি। ২৯ মিনিটে মার্সেলোর ক্রস থেকে কাসেমিরোর হেডও আল জাজিরার জাল খুঁজে নেয়। কিন্তু রেফারি সান্দ্রো রিচি তিন-তিনবার সিদ্ধান্ত বদল করেন।

প্রথমে তিনি অফ সাইডের কারণে গোল বাতিল করেন, পরক্ষণেই আবার লাইন্সম্যানের সঙ্গে কথা বলে গোলের বাঁশি বাজান। এরপর আল জাজিরার খেলোয়াড়দের প্রতিবাদে ভিডিও রেফারির সাহায্য নেন। ভিডিও রেফারি একাধিক রিপ্লে দেখার পর গোল বাতিল করে দেন।

৪১ মিনিটে রিয়াল মাদ্রিদকে স্তব্ধ করে দিয়ে এগিয়ে যায় আল জাজিরা। গোল করে তাদের লিড এনে দেন ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড রোমারিনহো। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে লিড দ্বিগুণও হয়ে যেতে পারত আল জাজিরার। এমবার্গ বুসাফা রিয়ালের জালে বল জড়িয়েছিলেন। কিন্তু অফ সাইডের কারণে তার গোলটা বাতিল করে দেন রেফারি। 

৫১ মিনিটে চোট নিয়ে মাঠ ছাড়েন আল জাজিরার গোলরক্ষক কাশিফ। বদলি গোলরক্ষক হিসেবে মাঠে নামেন খালেদ আল সেনানি। এর দুই মিনিট পরই সমতায় ফেরে রিয়াল। লুকা মডরিচের পাস গোল করেন রোনালদো।

এরপর বেনজেমার দুটি শট পোস্টে লেগে ফেরে। ৮১ মিনিটে তাকে উঠিয়েই বেলকে নামান রিয়াল মাদ্রিদ কোচ জিনেদিন জিদান। আর মাঠে নামার প্রথম মিনিটেই দলের ত্রাণকর্তা হয়ে দেখা দেন ওয়েলস উইঙ্গার। 

আগামী শনিবার ব্রাজিলিয়ান ক্লাব গ্রেমিওর বিপক্ষে ফাইনাল খেলবে রিয়াল মাদ্রিদ। ২০১৪ ও ২০১৬ সালে ক্লাব বিশ্বকাপের শিরোপা জিতেছিল রিয়াল। এবার জিতলে সর্বোচ্চ তিনবার শিরোপা স্বাদ নেওয়া বার্সেলোনার রেকর্ড ছুঁয়ে ফেলবে ‘লস ব্লাঙ্কোস’রা

ডাবল সেঞ্চুরি বউকে উপহার দিলেন রোহিত

ওয়ানডে ক্রিকেটের ইতিহাসে ডাবল সেঞ্চুরি ৭টি। পাঁচজন খেলোয়াড় ৭টি সেঞ্চুরি করেছেন। তার মধ্যে ৩টিই করেছেন ভারতের রোহিত শর্মা। আজ বুধবার শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ক্যারিয়ারের তৃতীয় ডাবল সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন রোহিত। তার অনবদ্য ২০৮ রানে ভর করে ভারত করে ৩৯২ রান। আর জয় পায় ১৪১ রানে। ম্যাচ শেষে রোহিত শর্মা জানিয়েছেন আজকের ডাবল সেঞ্চুরিটি তার স্ত্রীকে বিবাহ বার্ষিকীর উপহার হিসেবে দিয়েছেন। আজ রোহিত ও রিতিকার দ্বিতীয় বিবাহ বার্ষিকী।

ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে রোহিত শর্মা বলেন, ‘আজ আমাদের দ্বিতীয় বিবাহ বার্ষিকী। আজকের এই ডাবল সেঞ্চুরিটি বিবাহ বার্ষিকীতে আমার স্ত্রীর জন্য উপহার। আমি খুশি যে আজকের এই বিশেষ দিনটিতে আমার স্ত্রীও আমার সঙ্গে এখানে আছে। আমি জানি সে আমার দেওয়া এমন উপহার খুবই পছন্দ করেছে। সে আমাকে নানাভাবে শক্তি যোগাচ্ছে। সে সব সময় আমাকে সমর্থন দিয়ে এসেছে। আমি এই পেশায় আছি বলে তাকে অনেক চাপের মধ্যে থাকতে হয়। কিন্তু সে যখন পাশে থাকে তখন বিশেষ কিছু মনে হয়।’

তিনি আরো বলেন, ‘তৃতীয় ডাবল সেঞ্চুরির চেয়েও বেশি আনন্দের বিষয় হল আজ আমরা ম্যাচটি জিতেছি। ভালো কিছু করতে আমরা বদ্ধ পরিকর ছিলাম।’



অন্যান্য খেলা

গত ডিসেম্বরে বাগদানের পর চলতি বছরের সেপ্টেম্বরে সেরেনা-ওহানিয়ানের সংসারে আসে প্রথম সন্তান। কন্যাসন্তান ঘর আলোকিত করার পরই বিয়ের ঘোষণা দেন সেরেনা উইলিয়ামস। অবেশেষে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম রেডডিটের সহ-প্রতিষ্ঠাতা শিল্পপতি অ্যালেক্সিস ওহানিয়ানকে বিয়ে করলেন ২৩টি গ্র্যান্ডস্লাম জয়ী মার্কিন এই টেনিস ললনা।

মার্কিন গনমাধ্যমের খবরে জানা গেছে, আমেরিকার নিউ অরলিন্স অঙ্গরাজ্যের কনটেম্পোরারি আর্টস সেন্টার এক জমজমাট অনুষ্ঠানে বিয়ের কাজ শেষ হয় সেরেনার। অনুষ্ঠানে ব্যয় হয়েছে ১০ লাখ ডলার। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ভোগ ম্যাগাজিনের কিংবদন্তি সম্পাদক অন্না উইনট্যুর, রিয়েলিটি টিভি তারকা কিম কার্দিশিয়ান, অভিনেত্রী এভা লঙ্গোরিয়া, গায়ক কিয়ারা, ক্যারলিন ওয়াজনিয়াকি, কেলি রাউল্যান্ড, কারাসহ ২৫০ জন অতিথি উপস্থিত ছিলেন। এদের নিরাপত্তার জন্য নিউ অরলিয়েন্স শহরের কিছু গুরুত্বপুর্ণ সড়ক বন্ধ করে দেওয়া হয়।

২০১৫ সালে রোমে ৩৪ বছর বয়সী ওহানিয়ানের সঙ্গে পরিচয় হয় ৩৬ বছরের সেরেনার। প্রথম দর্শনেই একে অপরকে ভালো লাগে। সেই ভালো লাগা থেকে গভীর প্রণয়। তাই কালবিলম্ব না করে চটজলদি আংটিও বদল করে ফেলেন।

এদিকে ক্যারিয়ারে মোট ২৩টি গ্র্যান্ডস্ল্যাম জেতা সেরেনা সবশেষ গ্র্যান্ডস্ল্যাম জেতেন গেল বছরের শুরুতে। অনাগত সন্তানের সুষ্ঠু জন্মদানের কথা ভেবে অস্ট্রেলিয়ান ওপেন জেতার পর আর কোর্টে নামেননি মার্কিন কৃষ্ণকলি। এবার হয়তো দ্রুতই তাকে কোর্ট মাতাতেও দেখা যাবে।

ভারতের তৃতীয় নাকি মালয়েশিয়ার প্রথম ট্রফি?

ফয়জাল সারি এখন মালয়েশিয়ার অন্যতম ভরসা। গ্রুপ পর্ব থেকে দলের পয়েন্ট অর্জনে এই খেলোয়াড়ের অবদান অগ্রণীতে। গোল করেছেন হাফ ডজন।  এমনকি শনিবার এশিয়া কাপের সুপার ফোরের শেষ ম্যাচে দক্ষিণ কোরিয়ার বিপক্ষে ৫৮ মিনিটে গোল করে  দক্ষিণ কোরিয়াকে শুধু স্তব্ধ করে দেননি, মালয়েশিয়াকে প্রথমবারের মতো নিয়ে গেছেন ফাইনালে।  তাই রবিবার বিকাল সাড়ে ৫ টায় প্রথমবারের মতো ট্রফি জয়ের মিশনে নামছে মালয়েশিয়া। ট্রফি জেতার স্বপ্নে বিভোর স্টিফেন  উইজেনের দল।

উল্টো দিকে দুবারের চ্যাম্পিয়ন ভারত। প্রতিরোধ গড়তে তারাও প্রস্তুত। হারমানপ্রীত-চিকতে আকাশরা তৃতীয়বারের মতো ট্রফি নিয়ে দেশে ফিরতে উন্মুখ। অবশ্য পরিসংখ্যানও তাদের পক্ষে। দুদলের সর্বশেষ লড়াইয়ে এগিয়ে ভারত। সুপার ফোরে মুখোমুখিতে ৬-২ গোলে বড় জয়ের রেকর্ড শোর্ড মারিনের দলের। এছাড়া ইতিহাস বলছে ভারতের অন্য আসরের ট্রফিও শো-কেসে কম নেই। আটবার অলিম্পিক চ্যাম্পিয়ন, বিশ্বকাপ একবার, এশিয়ান গেমস তিনবার, আজলান শাহ ট্রফি পাঁচবার ও চ্যাম্পিয়নস ট্রফি দুবার জিতেছে তারা।

সেক্ষেত্রে মালয়েশিয়ার ঘরে আন্তর্জাতিক ট্রফি নেই বললেই চলে। এশিয়া কাপে ২০০৭ সালে তৃতীয় হওয়াটা তাদের বড় সাফল্য। ২০১৪ সালের সর্বশেষ বিশ্বকাপে ১২তম, এছাড়া আজলান শাহ ট্রফি, এশিয়ান গেমসসহ অন্য আসরে তিনের মধ্যে থাকতে পারেনি দলটি। তারপরেও ঢাকার টার্ফে ফাইনাল জয়ের স্বপ্ন তাদের। নিজেদের পারফরম্যান্স দেখিয়ে ট্রফি ঘরে তুলতে চাইছে তারা।

বিপরীতে ভারতের ডাচ কোচ সানমেরিন ফাইনালে প্রতিপক্ষ কে তা নিয়ে চিন্তিত নন। তার লক্ষ্য একটাই- ঢাকা থেকে ট্রফি অর্জন করা। পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ শেষে তিনি বলেছেন,‘ ফাইনালে আমাদের প্রতিপক্ষ কে, তা নিয়ে আমরা ভাবছি না। আমাদের চিন্তায় শুধু শিরোপা স্বপ্ন।’ 

অধিনায়ক মানপ্রীত সিংও একই ভাষায় কথা বললেন, ‘আমরা কোনও দলের কাছে এখনো হারিনি। এটাই আমাদের বড় রসদ। সুতরাং প্রতিপক্ষ নিয়ে তেমন চিন্তা করছি না। যেই দল আসুক না কেন, ট্রফির জন্য খেলবো।’

ওমানকে অষ্টমে ঠেলে দিয়ে চীন সপ্তম

সপ্তম হয়ে দশম এশিয়া কাপ হকি শেষ করেছে চীন। শুক্রবার রাতে মওলানা ভাসানী স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত সপ্তম স্থান নির্ধারণই ম্যাচে তারা ৩-২ গোলে হারিয়েছে ওমানকে। প্রথমার্ধে চীন ২-১ গোলে এগিয়েছিল। টুর্নামেন্টের সব ম্যাচ হেরে অষ্টম হয়েছে ওমান। ম্যাচটি হওয়ার কথা ছিল বিকেল ৩ টায়। কিন্তু বৃষ্টির কারণে পিছিয়ে শুরু হয় রাত সাড়ে আটটায়।

ম্যাচের ১১ মিনিটে গোল করে চীনকে এগিয়ে দেন সু লিজিং। তবে বেশি সময় এগিয়ে থাকতে পারেনি তারা। ১৬ মিনিটে পেনাল্টি কর্নার থেকে গোল করে ওমানকে সমতায় ফেরান কাশিম আসাদ মোবারক। প্রথমার্ধেই চীন আবার এগিয়ে যায়। ২৭ মিনিটে ফিল্ড গোল করেন চীনের দু চেন। তৃতীয় কোয়ার্টারে দুই দল একাধিক সুযোগ পায়। তবে চীন পারেনি ব্যবধান বাড়াতে, ওমানও পারেনি ম্যাচে ফিরতে।

 

চতুর্থ কোয়ার্টারে গিয়ে তৃতীয় গোল করে চীন। ৫২ মিনিটে জিউ জিয়াপিংয়ের দুর্দান্ত ফিল্ড গোল অনেকটা নির্ভার করে চীনকে। লড়াকু ওমান ৩-১ গোলে পিছিয়ে পড়েও হাল ছাড়েনি। ৫৬ মিনিটে দুর্দান্ত ফিল্ড গোলে ব্যবধান কমান রজব বাশিম।

৮ দলের মধ্যে ওমান অষ্টম হলেও তাদের খেলা ছিল ইতিবাচক। কোনো ম্যাচ না জিতলেও প্রতিটি ম্যাচেই তাদের লড়াকু খেলা ছিল প্রশংসনীয়। প্রতিটি ম্যাচেই তারা গোল করে ম্যাচে ফেরার চেষ্টা করেছে।

শেষ দল হিসেবে সুপার ফোরে দক্ষিণ কোরিয়া

সর্বশেষ দুইবারের চ্যাম্পিয়ন দক্ষিণ কোরিয়ার দশম এশিয়া কাপ হকি শুরু হয়েছিল ওমানকে ৭-২ গোলে উড়িয়ে দিয়ে। তবে চ্যাম্পিয়নের মতো শুরু করলেও দ্বিতীয় ম্যাচেই কোরিয়ানরা হেরে বসে মালয়েশিয়ার কাছে। যে হারটি চ্যাম্পিয়নদের সুপার ফোর নিশ্চিত করতে অপেক্ষা করতে হয়েছে গ্রুপ পর্বের শেষ বাঁশি পর্যন্ত।

সোমবার সন্ধ্যায় মাওলানা ভাসানী হকি স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচে চারবারের চ্যাম্পিয়ন দক্ষিণ কোরিয়া ৪-১ গোলে চীনকে হারিয়ে শেষ দল হিসেবে নাম লেখায় সুপার ফোরে।

গ্রুপ পর্ব শেষ। একদিন বিরতি দিয়ে বুধবার শুরু হচ্ছে দ্বিতীয় পর্ব। যেখানে দুই গ্রুপের চ্যাম্পিয়ন ও রানার্সআপ ৪ দল খেলবে সুপার ফোরে এবং শেষ ৪ দল খেলবে পঞ্চম থেকে অষ্টম স্থান নির্ধারনী ম্যাচ।

সুপার ফোরের খেলা শুরু হবে মালয়েশিয়া-পাকিস্তানের ম্যাচ দিয়ে বুধবার বিকেল ৩ টায়। ওই দিন সন্ধ্যা সাড়ে ৫টায় ভারত খেলবে দক্ষিণ কোরিয়ার বিরুদ্ধে। রাত ৮টায় স্থাননির্ধারণী ম্যাচে মুখোমুখি হবে জাপান-ওমান।

চোখ বুলানো যাক শেষ হওয়া গ্রুপ পর্বে। ‘এ’ গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন ভারত ও ‘বি’ গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন মালয়েশিয়া আছে অপরাজিত। সব ম্যাচ হেরেছে বাংলাদেশ ও ওমান। তিন ম্যাচে সবচেয়ে বেশি ১৭ গোল খেয়েছে বাংলাদেশ। প্রতিপক্ষের জালে সবচেয়ে কম গোলও (১টি) দিয়েছে স্বাগতিকরা। সবচেয়ে বেশি ১৬ গোল মালয়েশিয়ার, তারপর ভারত ১৫ গোল।

নেপালে প্রথম জুরখানে কুস্তি চ্যাম্পিয়নশিপে বাংলাদেশ রানার্স আপ

নেপালের রাজধানী কাঠমন্ডুতে ১৩ ও ১৪ অক্টোবর দুই দিনব্যাপী অনুষ্ঠিত হলো প্রথম জুরখানে কুস্তি পালোয়ানি চ্যাম্পিয়নশিপ-২০১৭। সাফ রিজিওনাল এ চ্যাম্পিয়নশিপে বাংলাদেশ দল ২টি স্বর্ণসহ মোট ৯টি পদক জিতে রানার্স আপ হওয়ার গৌরব অর্জন করেছে। প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হয়েছে আফগানিস্তান, তৃতীয় হয়েছে স্বাগতিক নেপাল এবং ৪র্থ হয়েছে শ্রীলঙ্কা।

প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশ দলের শরৎ চন্দ্র ব্যক্তিগত কাবাডে ইভেন্টে আট দেশের খেলোয়াড়কে হারিয়ে স্বর্ণ পদক জয় করেন। প্রথম হওয়ার জন্য তিনি প্রাইজমানি পান ১০০ ডলার। ব্যক্তিগত ইভেন্টে মাইনাস ৭০ কেজি ওজন শেণিতে পাঁচ দেশের খেলোয়াড়কে হারিয়ে স্বর্ণ জয় করেন সিরাজুল ইসলাম। তিনিও প্রাইজমানি পান ১০০ ডলার।

এদিকে, দলীয় ডিসপ্লে ইভেন্টে আফগানিস্তানের কাছে পরাজিত হওয়ার ফলে রৌপ্য পায় বাংলাদেশ। দলীয়ভাবে ২০০ ডলার প্রাইজমানি পায় বাংলাদেশের কুস্তিগিররা। কুস্তি ইভেন্টে মাইনাস ৬০ কেজি ওজন শ্রেণিতে ভারতকে হারিয়ে এবং আফগানিস্তানের কাছে হেরে রৌপ্য পদক পায় রঞ্জু আহমেদ। কুস্তিতে মাইনাস ৯০ কেজি ওজন শ্রেণিতে ব্রোঞ্জ পদক পান মিজানুর রহমান।

জুরখানে ডিসিপ্লিনে বাংলাদেশের সিরাজুল ইসলাম ও রঞ্জু আহমেদ দুজনই পান রৌপ্য পদক। এছাড়া, হেভী মিলবাজি ইভেন্টে ব্রোঞ্জ পদক পায় মগনু মারমা। মিলবাজি ইভেন্টে ব্রোঞ্জ পান দিপু চন্দ্র। ট্রফি ও মেডেলের পাশাপাশি চ্যাম্পিয়ন দল প্রাইজমানি হিসেবে পায় ৪০০ ডলার, রানার্স আপ ২০০ ডলার এবং তৃতীয় স্থান অধিকারী পায় ১০০ ডলার।

উল্লেখ্য, প্রথম জুরখানে কুস্তি পালোয়ানি চ্যাম্পিয়নশিপে বাংলাদেশসহ স্বাগতিক নেপাল, পাকিস্তান, ভুটান, শ্রীলঙ্কা, আফগানিস্তান, মালদ্বীপ ও ভারত অংশগ্রহণ করে। চ্যাম্পিয়নশিপে কোচসহ মোট ৯ সদস্যের বাংলাদেশ দল অংশগ্রহণ করেছিল।

প্রথম বিভাগ কাবাডিতে সানশাইন স্পোর্টিং ক্লাব চ্যাম্পিয়ন

বাংলাদেশ কাবাডি ফেডারেশনের ব্যবস্থাপনায় এবং এ্যাডটাচ স্পোর্টস এন্ড লাইভ ইভেন্ট এর পৃষ্ঠপোষকতায় প্রথম বিভাগ কাবাডি লিগে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে সানশাইন স্পোর্টিং ক্লাব।

আজ রোববার ফাইনালে সানশাইন স্পোটিং ক্লাব ৪৭-৪৫ পয়েন্টে স্টার স্পোর্টিং ক্লাবকে পরাজিত করে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করে।

চ্যাম্পিয়ন দল ৩০ হাজার,  রানার্স আপ দল ২০ হাজার টাকা এবং সেমিফাইনাল থেকে বিদায় নেওয়া ২টি দলকে ১০ হাজার টাকা করে প্রাইজমানি দেওয়া হয় ।

প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বিজয়ী ও বিজিত দলের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করেন একেএম শহীদুল হক, বিপিএম, পিপিএম, ইন্সপেক্টর জেনারেল ও বাংলাদেশ কাবাডি ফেডারেশনের সভাপতি । অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন এবং সভাপতিত্ব করেন টুর্নামেন্ট কমিটির চেয়ারম্যান ও উপ-পুলিশ কমিশনার, আইএডি মো. আলমগীর কবীর ।

বাংলাদেশ কাবাডি ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান বিপিএম (বার) পিপিএম, অতিরিক্ত ডিআইজি (সংস্থাপন) বাংলাদেশ পুলিশ উপস্থিত প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক্স মিডিয়ার ক্রীড়া সাংবাদিক ও উপস্থিত ক্রীড়ামোদি দর্শকদের ধন্যবাদ জানিয়ে বক্তব্য রাখেন।

বর্ষসেরা অ্যাথলেটের তালিকায় নেই বোল্ট

আটবারের অলিম্পিক স্বর্ণপদকজয়ী, বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপে ১১টি স্বর্ণজয়ী, এখনও ১০০ এবং ২০০ মিটার স্প্রিন্টের বিশ্বরেকর্ডের মালিক উসাইন বোল্টের কি না নাম নেই বর্ষসেরা অ্যাথলেটের তালিকায়? শুনতে অবিশ্বাস্য ঠেকলেও এমনটাই হয়েছে। এর আগে ছয়বার জিতলেও এবার আইএএএফ বর্ষসেরা অ্যাথলেটের মনোনয়ন তালিকায় জায়গা পাননি জ্যামাইকান এই গতিতারকা।

২০১৭ সালের লন্ডন বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপের পর স্প্রিন্টকে বিদায় বলেছেন বোল্ট। সারাজীবন প্রথম হওয়া এই গতিতারকা জীবনের শেষ স্প্রিন্টে হয়েছিলেন তৃতীয়! বর্ষসেরা অ্যাথলেটের তালিকায় জায়গা পাননি তার স্বদেশী স্প্রিন্ট তারকা জাস্টিন গ্যাটলিনও।

 

তবে অনুমিতভাবেই এই তালিকায় পুরুষ দৌড়বিদদের মধ্যে রয়েছেন ব্রিটেনের ১০ হাজার মিটার বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন মো ফারাহ। জায়গা পেয়েছেন দক্ষিণ আফ্রিকার ৪০০ মিটারজয়ী দৌড়বিদ ওয়েড ফন নিকার্কও।

এশিয়ান ইনডোর দাবায় রাজীব পঞ্চম

এশিয়ান ইনডোর অ্যান্ড মার্শাল আর্টস গেমস দাবার এককে পঞ্চম হয়েছেন বাংলাদেশের গ্র্যান্ডমাস্টার এনামুল হোসেন রাজীব। তুর্কমেনিস্তানের আশগাবাদে চলমান গেমস দাবায় রাজীবসহ ৪ জন ৭ খেলায় ৫ পয়েন্ট করে নিয়ে ব্রোঞ্জ মেডেলের জন্য টাই করেন। টাইব্রেকিংয়ে ভারতের গ্র্যান্ডমাস্টার কৃষ্ণান শশীকিরণ তৃতীয় হয়ে ব্রোঞ্জ জিতেছেন। কিরগিজস্তানের গ্র্যান্ডমাস্টার মারকভ মিখাইল চতুর্থ, রাজীব পঞ্চম এবং ইরানের গ্র্যান্ডমাস্টার ইদানি পোয়া ষষ্ঠ হয়েছেন।

বাংলাদেশের আরেক গ্র্যান্ডমাস্টার মোল্লা আব্দুল্লাহ আল রাকিব ৪ পয়েন্ট নিয়ে হয়েছেন ১৭তম। মহিলা বিভাগে আন্তর্জাতিক মহিলা মাস্টার শামীমা আক্তার লিজা ৭ খেলায় ৪ পয়েন্ট নিয়ে ১৪তম এবং মহিলা ফিদে মাস্টার শারমীন সুলতানা শিরিন ৩ পয়েন্ট নিয়ে ২৬তম হয়েছেন।

রোববার সপ্তম বা শেষ রাউন্ডে রাজীব ভিয়েতনামের গ্র্যান্ডমাস্টার দাও দিয়েন হাইকে পরাজিত করেন এবং রাকিব কাজাকস্তানের গ্র্যান্ডমাস্টার যুমায়েভ রিনাতের সাথে ড্র করেন। মহিলা বিভাগে লিজা ইন্দোনেশিয়ার মহিলা গ্র্যান্ডমাস্টার আওলিয়া মাদিনা ওয়ারদার কাছে ও শিরিন তুর্কমেনিস্তানের ফিদে মাস্টার হালায়েভা বাহারের কাছে হেরে যান।

ইউএস ওপেন নাদালের

বছরটায় আগুনে ফর্মে রয়েছেন রাফায়েল নাদাল। গত জুনে জিতেছেন ফ্রেঞ্চ ওপেন।  এবার ২০১৩ সালের পর আরেকটি শূন্যতা পূরণ করলেন। জিতলেন বছরের দ্বিতীয় গ্র্যান্ড স্লাম। দক্ষিণ আফ্রিকার কেভিন অ্যান্ডারসনকে হারিয়ে ঘরে তুলেছেন এবার ইউএস ওপেনের শিরোপা।

 

বিশ্ব র‌্যাংকিংয়ের এক নম্বর তারকা বলেই জয়টা ছিল একপেশে। ৬-৩, ৬-৩, ৬-৪ গেমে হারিয়েছেন অ্যান্ডারসনকে।

এই জয় দিয়ে শিরোপার দিক দিয়ে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছেন এই স্প্যানিয়ার্ড। ১৯টি গ্র্যান্ড স্লাম নিয়ে শীর্ষে রয়েছেন রজার ফেদেরার। ১৬টি নিয়ে পরেই রয়েছেন নাদাল। ১৪টি নিয়ে তৃতীয় স্থানে রয়েছেন পিট সাম্প্রাস।

বছরে যখন দুটি শিরোপা তুলেছেন তাই আবেগটা ভিন্নভাবেই প্রকাশ করলেন ৩১ বছর বয়সী তারকা, ‘এ বছরে যা হলো তা সত্যিই অবিশ্বাস্য।’বেশ কয়েক বছর ইনজুরিতে ভুগেছেন। যার প্রভাব পড়েছিল পারফরম্যান্সেও, ‘অনেক বছরই ইনজুরি, নানা ঝক্কি ঝামেলায় ভালো খেলতে পারিনি। তাই মৌসুমের শুরু থেকে আমি খুবই আবেগপ্রবণ ছিলাম।’

এই বিভাগের আরো খবর

Go Top