ব্যাটিং ব্যর্থতায় বাংলাদেশ ‘এ’ দলের হারব্যাটিং ব্যর্থতায় বাংলাদেশ ‘এ’ দলের হার

ব্যাটিং ব্যর্থতায় বাংলাদেশ ‘এ’ দলের হারব্যাটিং ব্যর্থতায় বাংলাদেশ ‘এ’ দলের হার

লক্ষ্যটা খুব একটা বড় ছিল না। কিন্তু ব্যাটিং ব্যর্থতায় সেটি ছুঁতে পারেনি বাংলাদেশ ‘এ’ দল। তৃতীয় আনঅফিসিয়াল ওয়ানডেতে আয়ারল্যান্ড ‘এ’ দলের কাছে হেরেছে ৩৪ রানে।

উইকলোর ওক হিল ক্রিকেট ক্লাব মাঠে রোববার আগে ব্যাট করে আয়ারল্যান্ড ‘এ’ তিন বল বাকি থাকতে অলআউট হয়েছিল ২৪৫ রানে। জবাবে ৪৬.৩ ওভারে ২১১ রানে গুটিয়ে যায় বাংলাদেশ ‘এ’।

এই জয়ে পাঁচ ম্যাচ সিরিজে ১-১ সমতা ফেরাল আইরিশরা। প্রথম ম্যাচ বৃষ্টিতে ভেসে গিয়েছিল, দ্বিতীয় ম্যাচ বাংলাদেশ জিতেছিল ৮৭ রানে। বুধবার একই মাঠে হবে চতুর্থ ম্যাচ।



টস জিতে বোলিং নিয়ে বাংলাদেশের শুরুটা দারুণ হয়েছিল। ৯ রানের মধ্যেই তুলে নিয়েছিল ২ উইকেট। ৫৩ রানের মধ্যে আয়ারল্যান্ডের সবচেয়ে বড় তারকা অ্যান্ডি বালবির্নিকেও ফিরিয়েছিল সফরকারীরা। কিন্তু বোলাররা ভালো শুরুটা ধরে রাখতে পারেননি।

তৃতীয় উইকেটে ১০৩ রানের বড় জুটি গড়েন। স্টুয়ার্ট থম্পসন ও অ্যান্ডি ম্যাকব্রাইন। থম্পসন ৯১ বলে ৬ চার ও এক  ছক্কায় করেন ৬৮। ম্যাকব্রাইন ৭৪ বলে ৫ চার ও এক ছক্কায় ৫৯। শেষ দিকে গ্রাহাম কেনেডির ২৩ ও  জোনথন গ্রাথের ১৫ রানে আড়াইশর কাছাকাছি পুঁজি পায় আইরিশরা।

১০ ওভারে ৪২ রানে ৪ উইকেট নিয়ে বাংলাদেশ ‘এ’ দলের সেরা বোলার খালেদ আহমেদ। সানজামুল ১০ ওভারে ৪১ রানে নেন ২ উইকেট। মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনও নেন ২ উইকেট, ৫৬ রানে। একটি করে উইকেট পেয়েছেন শরিফুল ইসলাম ও সাইফ হাসান।

আগের ম্যাচে ১৩৯ রানের উদ্বোধনী জুটি পেয়েছিল বাংলাদেশ। সে ম্যাচে ৯২ রান করা জাকির হাসান এদিন ফিরেছেন ৮ রান করেই। তার সঙ্গী সাইফ হাসান দলীয় ৭২ রানে ফেরেন ব্যক্তিগত ৩৪ রানে।



তৃতীয় উইকেটে জুটি বেঁধে দলের স্কোর একশ পার করেন অধিনায়ক মুমিনুল হক ও মোহাম্মদ মিথুন। একটা সময় বাংলাদেশের সংগ্রহ ছিল ২ উইকেটে ১১৩। এরপরই ৪ রানের মধ্যে মিথুন আর মুমিনুলকে হারায় দল। মুমিনুল ৬৬ বলে ৩ চারে ৪৬, মিথুন করেন ২৮ বলে ২৩ রান।

জোড়া ধাক্কাটা আর সামলে উঠতে পারেনি বাংলাদেশ। ১৪৯ রানেই ৭ উইকেট হারানোর পর সাইফউদ্দিন ও সানজামুলের ৪৯ রানের জুটি কেবল পরাজয়ের ব্যবধানই কমাতে পারে। সাইফউদ্দিন ২৭, সানজামুল ২৬ রান করেন।

আইরিশদের টাইরন কেন ২৪ রানে নেন ৪ উইকেট। ৩টি করে উইকেট নেন ম্যাকব্রাইন ও ব্যারি ম্যাকার্থি।