বন্ধু আজারকে বাড়ি পাঠাতে প্রস্তুত ব্রাজিলের উইলিয়ান

বন্ধু আজারকে বাড়ি পাঠাতে প্রস্তুত ব্রাজিলের উইলিয়ান

রাশিয়া বিশ্বকাপে ব্রাজিল-বেলজিয়াম ম্যাচ চেলসির দুই বন্ধুকে মুখোমুখি করিয়ে দিয়েছে। তবে মাঠের লড়াই শুরু হলে বন্ধু এদেন আজারকে বাড়ি পাঠাতে সব কিছু করবেন বলে জানিয়েছেন ব্রাজিলের মিডফিল্ডার উইলিয়ান।

কাজানে আগামী শুক্রবার বাংলাদেশ সময় রাত ১২টায় সেমি-ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে মুখোমুখি হবে দুই দল।

কোয়ার্টার-ফাইনাল ম্যাচ সামনে রেখে উইলিয়ান জানিয়েছেন, প্রতিপক্ষ দলে থাকা বন্ধুর জন্য তার কোনো সহানুভূতি থাকবে না।

“আজার বিশ্বের অন্যতম সেরা খেলোয়াড় কিন্তু আমরা তার প্রতিপক্ষ। চেলসিতে আমার কাটানো পাঁচ-ছয় বছরের মধ্যে এই প্রথম আমি তার বিপক্ষে খেলব।”

“ক্লাবে আমি তার বন্ধু কিন্তু এখানে সে তার দলে, আমি আমার দলে এবং আশা করি, আমি তাকে হারাতে পারব। জয়ের জন্য আমি সবকিছু করব কিন্তু আমাদের বন্ধুত্বও চলবে।”

বেলজিয়ামের গোলরক্ষক থিবো কোর্তোয়াও উইলিয়ানের ক্লাব সতীর্থ। তবে ব্রাজিলের এই মিডফিল্ডার শুধু তার বন্ধুদের নিয়ে নন, রাশিয়ার আসরে এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি গোল (১২টি) করা বেলজিয়ামের পুরো দলকে নিয়ে সতর্ক।

“প্রতিপক্ষের প্রতি আমাদের অনেক শ্রদ্ধা আছে। আমরা জানি বেলজিয়াম দলে কত মানসম্পন্ন খেলোয়াড় আছে। কিন্তু আমাদের একইভাবে খেলা চালিয়ে যেতে হবে; আগের ম্যাচের তুলনায় আরও ভালো খেলতে হবে এবং এ ম্যাচেও আমরা সে লক্ষ্য নিয়ে নামব।”

শেষ ষোলোর পথটা অবশ্য বেলজিয়ামের চেয়ে ব্রাজিল দারুণভাবে পার করেছে। নেইমার ও রবের্ত ফিরমিনোর গোলে মেক্সিকোকে ২-০ ব্যবধানে হারায় ব্রাজিল। অন্যদিকে দুই গোল হজমের পর ঘুরে দাঁড়িয়ে জাপানকে ৩-২ ব্যবধানে হারিয়ে শেষ আটে উঠে আসে বেলজিয়াম।

উইলিয়ানের মনে হচ্ছে জাপানের বিপক্ষের জয়টি বেলজিয়ামকে আরও আত্মবিশ্বাস যোগাবে। কিন্তু ব্রাজিলের সেমি-ফাইনালে ওঠা নিয়ে নিশ্চিত তিনি। নিজের দলকে ফেভারিটও মনে করেন ২৯ বছর বয়সী এই মিডফিল্ডার।

“আমরা জানি আমাদের কি করতে হবে। আমরা বেলজিয়ামকে বিশ্লেষণ কারা চালিয়ে যাব। তাদেরকে নিস্ক্রিয় করে রাখার এবং তাদের দুর্বল জায়গায় আঘাত করার চেষ্টা করব।”