হায়দরাবাদের দ্বিতীয় নাকি চেন্নাইর তৃতীয়?

হায়দরাবাদের দ্বিতীয় নাকি চেন্নাইর তৃতীয়?

ম্যাচ পাতানোর অভিযোগে দুই বছর নিষিদ্ধ ছিল চেন্নাই সুপার কিংস। দুই বছরের নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে আইপিএলের একাদশ আসরে ফিরেছে তারা। দুই বছর পর ফিরলেও তারা যে সঠিক ট্রাকেই আছে সেটার প্রমাণ দিয়ে সপ্তমবারের মতো ফাইনালে উঠেছে ধোনির দল। প্রথম কোয়ালিফায়ার ম্যাচে যে সানরাইজার্স হায়দরাবাদকে হারিয়ে ফাইনালে উঠেছে চেন্নাই, শিরোপা নির্ধারণী ম্যাচে তাদের প্রতিপক্ষ সেই দলটিই।

অন্যদিকে হায়দরাবাদের এটা দ্বিতীয় ফাইনাল। ২০১৬ সালে ফাইনালে উঠে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে তারা। পরের বছর প্লে-অফ খেলেছে। এবার আবার ফাইনালে উঠেছে। চেন্নাই সুপার কিংস এর আগে ছয়বার ফাইনালে উঠলেও শিরোপা জিতেছে মাত্র ২ বার। ২০১০ সালে প্রথম ও ২০১১ সালে দ্বিতীয়। প্রথম আসরে ফাইনালে উঠলেও রানার্স-আপ হয়েছিল। এরপর ২০১২, ২০১৩ ও ২০১৫ সালে ফাইনালে উঠে শিরোপা জিততে পারেনি।

আইপিএলের ফাইনাল ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় আজ সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায়। মুম্বাইর ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়াম থেকে যা সরাসরি সম্প্রচার করবে বাংলাদেশের চ্যানেল নাইন ও ভারতের স্টার স্পোর্টস-১।


শক্তিমত্তায় চেন্নাই অবশ্য এগিয়ে। তাদের দলের ধোনি ও সুরেশ রায়না এর আগে আইপিএলের ছয়টি ফাইনাল খেলেছেন। ডোয়াইন ব্রাভো খেলেছেন চারটি আর রবীন্দ্র জাদেজা খেলেছেন ৩টি ফাইনাল। তার উপর এবারের আসরে তাদের চারজন ব্যাটসম্যান ৪০০ এর উপরে রান করেছেন। আম্বাতি রাইডু ৫৮৬, ধোনি ৪৫৫, শেন ওয়াটসন ৪৩৮ ও সুরেশ রায়না ৪১৩। প্রথম দিকে তাদের বোলিং বিভাগটা খুব বেশি ভালো মনে না হলেও শেষ দিকে এসে ভেলকি দেখাচ্ছেন লুঙ্গি এনগিদি ও দীপক চাহার।

কিন্তু চেন্নাইর ব্যাটিং লাইন-আপ মাত্র ২৪ বলে ধ্বসিয়ে দিতে পারেন হায়দরাবাদের রশিদ খান। সেটাকে প্রলম্বিত করতে পারে সাকিব আল হাসানের ঘূর্ণি। সিদ্ধার্ধ কল ও ভুবনেশ্বর কুমারও কঠিন করে তুলতে পারেন চেন্নাইর ব্যাটসম্যানদের সহজাত ব্যাটিং। তার উপর আগের দুই ম্যাচে রান না পাওয়া কেন উইলিয়ামসন যদি এই ম্যাচে জ্বলে ওঠেন তাহলে চেন্নাইর জন্য খারাপ কিছুই অপেক্ষা করছে। সেটাকে আরো খারাপ করতে পারেন শিখন ধাওয়ান, মানিষ পান্ডে, ইউসুফ পাঠানরা।
 


গ্রুপপর্বে দুইবারের মুখোমুখিতে দুইবারই হেরেছে হায়দরাবাদ। প্রথম ম্যাচে শেষ বলে হেরে যায় হায়দরাবাদ ৪ রানে। পরের ম্যাচে পুনেতে আম্বাতি রাইডু সেঞ্চুরি করে ও ওয়াটসন ৫৭ রান করে অনায়াস জয় এনে দেন। আর প্রথম কোয়ালিফায়ার ম্যাচে বিপর্যয়ে পড়লেও ফাপ ডু প্লেসি একাই জেতান চেন্নাইকে। তোলেন ফাইনালে।

আজ কী ভিন্ন ফল হবে? নাকি চতুর্থবারের মতো হায়দরাবাদকে হারিয়ে দিবে চেন্নাই? ফাইনালে যে-ই জিতুক শিরোপা কিন্তু যাচ্ছে চেন্নাইতেই। কারণ, চেন্নাই সুপার কিংসের মালিকানায় থাকা ইন্ডিয়া সিমেন্ট ও সানরাইজার্স হায়দরাবাদের মালিকানায় থাকা সান টিভির অফিস কিন্তু চেন্নাইতে। তাদের মালিকদের বাসাও চেন্নাইতে কাছাকাছি।