চড় মেরে মাঠের বাইরে ইব্রাহিমোভিচ

চড় মেরে মাঠের বাইরে ইব্রাহিমোভিচ

জলাতান ইব্রাহিমোভিচের রুঢ় আচরণ এবং আগ্রাসী মনোভাবের কথা প্রায় সবারই জানা। কারণে-অকারণে মেজাজ হারানো তার নিত্য-নৈমিত্যিক ঘটনা। সোমবার রাতে এমনই এক ঘটনার সাক্ষী হল ফুটবল বিশ্ব। এবার বড্ড বাড়াবাড়ি করে ফেলেছেন ইব্রাহিমোভিচ।  

এল এ গ্যালাক্সির এ স্ট্রাইকার চড় মেরে লাল কার্ড হজম করেছেন। মন্টেরিয়ালের মাইকেল পেটরাসোকে ম্যাচের ৪০ মিনিটে চড় মারেন ইব্রাহিমোভিচ। ভিডিও রিভিউ দেখে রেফারি তাকে লাল কার্ড দেখিয়ে মাঠের বাইরে পাঠান।

ম্যাচের ৪০তম মিনিটে মাইকেল পেটারসোর বুটে পাড়া খান ইব্রাহিমোভিচ। সময় নষ্ট না করে কিছু চিন্তা করার আগেই ডান হাত গিয়ে পেটারসোর গালে চড় দিয়ে বসেন ইব্রাহিমোভিচ। এরপর দুজনই মাটিয়ে লুটিয়ে পড়েন। তাদের ঘটনা এড়িয়ে যায় রেফারি ইসলামি ইলফাতের।


তিনি ভিডিও রিভিউ দেখতে চান। এবং ভিডিও দেখার পর মাঠে ঢুকে প্রথমে পিটারসোকে হলুদ কার্ড দেখান এবং ইব্রাহিমোভিচকে লাল কার্ড দেখান। একাধিক গণমাধ্যম বলছে, আমেরিকান প্রফেশনাল সকার লিগে ভিডিও প্রযুক্তি আছে তা ভুলে গেয়েছিলেন ইব্রাহিমোভিচ। নয়তো এমনভাবে মাঠে চড় মারতেন না।

যদিও অতীত রেকর্ড বলছে, বরাবরই উগ্র ইব্রাহিমোভিচ। ৩৬ বছর বয়সি এ ফুটবলের এটি ১৩তম লাল কার্ড। এর আগে পিএসজি, ইন্টার মিলান ও এসি মিলানের জার্সিতে তিনবার করে লাল কার্ড হজম করেছিলেন। জুভেন্টাসের জার্সিতে দুবার এবং বার্সেলোনার জার্সিতে একবার রেড কার্ড পেয়েছিলেন। ম্যানচেষ্টার ইউনাইটেডের হয়ে কোনো লাল কার্ড না পেলেও তিন ম্যাচের জন্য নিষিদ্ধ হয়েছিলেন প্রতিপক্ষের খেলোয়াড়কে কনুই দিয়ে আঘাত করে।

তথ্যসূত্র: গোলডটকম, বিবিসি