স্মিথকে অধিনায়কের পদ থেকে সরিয়ে দিতে বলেছে অস্ট্রেলিয়ার সরকার

স্মিথকে অধিনায়কের পদ থেকে সরিয়ে দিতে বলেছে অস্ট্রেলিয়ার সরকার

বল টেম্পারিংয়ের দায় স্বীকার করার কয়েক ঘণ্টার মাথায় স্টিভেন স্মিথকে অধিনায়কের পদ থেকে সরিয়ে দিতে বলেছে অস্ট্রেলিয়ার সরকার। অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেট বোর্ডকে সরকারের পক্ষ থেকে এই নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী ম্যালকম টার্নবুল এই ঘটনাকে দুঃখজনক ও হতাশার বলে উল্লেখ করেছেন।

অস্ট্রেলিয়ার স্পোর্টস কমিশনের (এএসসি) চেয়ারম্যান জন ওয়েলি, এএসসি বোর্ড, সিইও কেট পালমার জানিয়েছেন অস্ট্রেলিয়ান সরকার দোষীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দিয়েছে। এএসসি এক বার্তায় জানিয়েছে, ‘এএসসি যেকোনো ধরনের খেলায় প্রতারণার ঘটনা ঘটলে শাস্তি দিয়েছে। এএসসি প্রত্যাশা করে এবং এএসসির চাওয়া হচ্ছে সব ধরনের খেলায় খেলোয়াড়রা তাদের ন্যায়পরায়ণতা, সাধুতা ও সত্যবাদিতা ধরে রেখে খেলবে। তারা দেশের প্রতিনিধিত্ব করে। তাই কোনোভাবেই যাতে দেশের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন না হয়।’

পাশাপাশি তারা স্টিভেন স্মিথের পদত্যাগের দাবি করেছে। তাদের মতে স্টিথের উচিত অনতিবিলম্বে পদত্যাগ করা। তার পাশাপাশি কোচিং স্টাফ থেকে শুরু করে যারাই এই ন্যাক্কারজনক কাণ্ডেরর সঙ্গে জড়িত আছে তাদের সবার পদত্যাগ দাবি করেছে সংগঠনটি।

ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা জেমস সাদারল্যান্ডও জড়িতদের বিরুদ্ধে তদন্তের পর কঠোর শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়ার কথা জানিয়েছেন, ‘সকালে ঘুম থেকে উঠে এমন খবর পড়ে ও দেখে যারপরনাই হতাশ হয়েছি। বোর্ড বল টেম্পারিংয়ের বিষয়টি তদন্ত করে দেখবে। তারপর তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিবে। সেটা আইসিসির শাস্তির বাইরেও।’