সুন্দর ঘুমের কৌশল

সুন্দর ঘুমের কৌশল

প্রতি রাতেই যদি ঘুমের সমস্যা হয় তাহলে কিছু কৌশল রপ্ত করুন। সুন্দর ঘুমের জন্য ব্যবহার করতে পারেন মিন্ট স্বাদের ‘থ্রোট স্প্রেস’ এবং ‘স্লিপ মাস্ক’।

ভারতের ম্যাট্রেস প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান ‘ওয়েকফিট’য়ের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা অঙ্কিত জর্জ এবং ‘ফাংশনাল ট্রেইনিং স্টুডিও- দ্য আউটফিট’য়ের প্রতিষ্ঠাতা দেভরাথ বিজয় জানিয়েছেন ভালো ঘুমের কিছু কৌশল। 

নাকডাকা রোধকারী পণ্য: ‘টাং স্ট্যাবিলাইজার’, ‘ন্যাসাল প্যাথওয়ে ক্লিনার’ ইত্যাদি নাকডাকা রোধকারী পণ্য ব্যবহার আপনাকে এবং আপনার পাশে ঘুমানো ব্যক্তিকে নির্ভেজাল ঘুম পেতে সাহায্য করবে। বাঁচাবে বিব্রতকর পরিস্থিতি থেকেও।

ম্যাট্রেস: ঘুম ভালো হওয়ার পেছনে বিছানার গুরুত্ব অপরিসীম। তোশক জাজিম ইত্যাদি পুরানো হলে উঁচু-নিচু হয়ে যায়। ফলে ঘুমে তো ব্যাঘাত ঘটেই, পিঠেও ব্যথা হতে পারে। তাই ভালোমানের ম্যাট্রেস ব্যবহার করতে পারেন যা ঘুমানোর সময় আপনার মেরুদণ্ডকে শিথিল রাখতে সাহায্য করবে।

মিন্ট স্বাদের থ্রোট স্প্রে: এই স্প্রেগুলো গলার পেছনের দিকে একটি আস্তরণ তৈরি করে যা গলার ভেতরের নরম টিস্যুর কম্পন কমিয়ে নাক ডাকা রোধ করে। ফলে ঘুমের সময় শ্বাস-প্রশ্বাস বাধা সৃষ্টি হবে না, ঘুম হবে নির্ভেজাল।

কোলাহল কমানো: শহরের পরিবেশে ঘরের বাইরে কোলাহল চলেই। আর যাদের সামান্য শব্দেই ঘুম ভেঙে যায় তাদের জন্য এই কোলাহল বিভীষিকা স্বরূপ। এক্ষেত্রে ব্যবহার করতে পারেন ‘নয়েজ রিডিউসার’ বা কানে গুজে রাখা নরম ইয়ার-প্লাগ।

স্লিপ মাস্ক: ঘুমানোর সময় চোখের উপর বসিয়ে রাখা নরম কাপড়ের আচ্ছাদনকে বলা হয় ‘স্লিপ মাস্ক’। সামান্য আলোতেও যাদের ঘুমাতে সমস্যা হয় কিংবা আলোকিত স্থানে যদি ঘুমাতে হয় তবে এই অনুষঙ্গ অত্যন্ত উপকারী। এটি সহজে বহন করা যায়, দাম কম এবং অফিসের কাজের ফাঁকে চট করে ১০ মিনিটের ঘুম দিতে এর জুড়ি নেই।