৮১ বছরের মধ্যে সবচেয়ে বাজে অবস্থায় এসি মিলান

৮১ বছরের মধ্যে সবচেয়ে বাজে অবস্থায় এসি মিলান

ছয় ম্যাচে ৪ পরাজয়, ২ জয়, ৬ পয়েন্ট, টেবিলে অবস্থান ১৬তম- ইতালিয়ান ঘরোয়া ফুটবলের সর্বোচ্চ আসর সিরি ‘আ’তে এমন অবস্থায়ই দাঁড়িয়ে আছে এসি মিলান। ক্লাব ফুটবলের ইতিহাসে অন্যতম পুরনো এ ক্লাবটি যেনো হারিয়ে খুঁজছে নিজেদের।

উদিনেসের কাছে ১-০ গোলে হেরে মৌসুম শুরু করেছিল এসি মিলান। তবে ঘুরে দাঁড়ায় পরের দুই ম্যাচে। ব্রেসিয়া এবং হেলাস ভেরোনার সঙ্গে জয়লাভ করে একই ব্যবধানে। কিন্তু এরপর আবার শনির দশায় মার্কো গিয়াম্পাওলোর শিষ্যরা।

রোববার রাতে নিজেদের ষষ্ঠ ম্যাচে ফিওরেন্টিনার কাছে ১-৩ গোলে হেরেছে এসি মিলান। এর আগে চতুর্থ ও পঞ্চম ম্যাচে নগর প্রতিদ্বন্দ্বী ইন্টারের কাছে ০-২ এবং তুরিনোর কাছে ১-২ গোলে হেরেছে তারা।

মৌসুম শুরুর ছয় ম্যাচের মধ্যে চারটিতেই হেরে ৮১ বছর আগের স্মৃতি মনে করিয়েছে ক্লাবটি। সবশেষ ১৯৩৮-৩৯ মৌসুমে প্রথম ছয় ম্যাচের মধ্যে ৪টিতে হেরেছিল এসি মিলান। এরও আগে ১৯৩০-৩১ মৌসুমেও একই অবস্থা হয়েছিল দলটির।

নিজেদের সবশেষ ম্যাচে ঘরের মাঠেই ফিওরেন্টিনার কাছে ১-৩ গোলে হেরেছে এসি মিলান। ম্যাচের ১৪ মিনিটে এরিক পুলগার, ৬৬ মিনিটে গাইতানো কাস্ত্রোভিল এবং ৭৮ মিনিটে গোল করেন ফ্রাঙ্ক রিবেরি। মিলানের পক্ষে ৮০ মিনিটে এক গোল শোধ করেন রাফায়েল লিয়াও।

ম্যাচ শেষে দলের এমন অবস্থার দায়ভার পুরোটাই নিজের কাঁধে নিয়ে নেন মিলান কোচ গিয়াম্পাওলো। তিনি বলেন, ‘অবশ্যই এর দায় আমার। তবে আমি এখানেই থেমে থাকতে চাই না, সামনের দিকে তাকানোতেই মঙ্গল বলে বিশ্বাস করি। তবে আমার বিরক্ত লাগছে হারের ধরন দেখে। আমি হয়তো হারতে পারেন, কিন্তু এভাবে হেরে যাওয়া মানায় না।’