৭শ’ শরণার্থীকে অপহরণ করেছে জঙ্গিগোষ্ঠী আইএস

৭শ’ শরণার্থীকে অপহরণ করেছে জঙ্গিগোষ্ঠী আইএস

করতোয়া ডেস্ক : সিরিয়ার একটি শরণার্থী শিবির থেকে ৭০০ জনকে জঙ্গি গোষ্ঠি আইএস অপহরণ করেছে বলে দাবি করেছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্রাদিমির পুতিন। অপহৃতদের মধ্যে অন্তত কয়েক ডজন নারী ও শিশু রয়েছে। তার দাবি, প্রতিদিন এদের মধ্য থেকে ১০ জন করে মেরে ফেলা হচ্ছে। ডেইলি মেইলকে দেয়া এক সাক্ষাতকারে পুতিন বলেন, ইসলামপন্থী সন্ত্রাসীরা ইতোমধ্যে বেশ কয়েকজন জিম্মিদের খুন করেছে এবং প্রতিদিন মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করছে। আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের তথ্য মতে, গত সপ্তাহে আইএস সিরিয়ার দেইর আল-জোর প্রদেশের ক্যাম্পে হামলা চালিয়ে প্রায় ১৩০ টি সিরিয়ান পরিবাবরকে জিম্মি করে। তবে এই জিম্মিদের মধ্যে ক্যাম্পে কাজ করতে আসা মার্কিন এবং ইউরোপীয় নাগরিক আছে বলে ধারণা করা যাচ্ছে।

 সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ছবিতে দেখা যায়, একদিন আগেই মার্কিন সামরিক বাহিনী যে জায়গাটিতে সিরিয়ানদের আটক করে রেখেছিল, ঠিক ওই জায়গায় আইএস সিরিয়ান শরণার্থীদের জিম্মি করে রেখেছে। পুতিনের দাবি, আইএস জঙ্গিরা ১৩ অক্টোবর যুক্তরাষ্ট্রের সমর্থিত বাহিনী দ্বারা নিয়ন্ত্রিত পূর্ব সিরিয়ার একটি এলাকায় শরণার্থী ক্যাম্পে হামলা চালায়, প্রায় ১৩০ পরিবারকে অপহরণ করে নিকটবর্তী শহর হাজিনে নিয়ে যায়। ব্রিটেনভিত্তিক সিরিয়ান মানবাধিকার পর্যবেক্ষণ দলের সদস্যের মতে, সিরিয়ায় চলমান গৃহযুদ্ধে আইএস দ্বারা জিম্মি অসংখ্য বিদেশি নারী ও পরিবারও রয়েছে। রিপোর্টে বলা হচ্ছে, ইসলামিক জঙ্গি গোষ্ঠি এরই মধ্যে আলোচনার শুরু করেছে। পর্যাপ্ত খাদ্য এবং ওষুধের বিপরীতে জিম্মিদের নিরাপদে ছেড়ে দেয়ার কথাও বলেন তারা। তাদের চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত যদি তাদের চাহিদাগুলো পূরণ না হয় তাহলে প্রতিদিন ১০ জন করে সিরিয়ানকে তারা হত্যা করবে। পুতিন বলেন, এর আগেই তারা এই মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করেছে, এটা অনেক ভয়ঙ্কর এবং বিপর্যয় নিয়ে আসছে।