৩ জেলায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত তিন

৩ জেলায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত তিন

 ঢাকা, নাটোর ও রাজশাহীতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ তিনজন নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার দিবাগত রাত থেকে বুধবার (১ আগস্ট) ভোরে এসব ‘বন্দুকযুদ্ধ’ হয়।

কেরানীগঞ্জ (ঢাকা): কেরানীগঞ্জে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’  মোহাম্মদপুরের শীর্ষ সন্ত্রাসী সিক্সটি ফাইভ খ্যাত মনির নিহত হয়েছেন।

বুধবার (১ আগস্ট) ভোরে কেরানীগঞ্জ মডেল থানাধীন আটি ভাওয়াল এলাকায় এ ‘বন্দুকযুদ্ধ’ হয়।

র‌্যাব -২ সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মো. রবিউল ইসলাম এতথ্য নিশ্চিত করে বলেন, মনির মোহাম্মদপুরের শীর্ষ সন্ত্রাসী, সে  "সিক্সটি ফাইভ মনির" নামে পরিচিত। তার বিরুদ্ধে থানায় ডাকাতি ও অস্ত্রসহ ১০টির বেশি মামলা রয়েছে।

এদিকে, মঙ্গলবার (৩১ জুলাই) দিবাগত রাতে নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলায় র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ কাবিল হোসেন (৪৫) নামে এক মাদক বিক্রেতা নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন দুই র‌্যাব সদস্য।
 
র‌্যাব-৫, নাটোর ক্যাম্পের স্কোয়ার্ড কমান্ডার ও সহকারী পুলিশ সুপার মো. আজমল হোসেন এতথ্য নিশ্চিত করে জানান, এ সময় ঘটনাস্থল থেকে বিদেশি পিস্তল, ম্যাগজিন, গুলির খোসা, ২৮০ পিস ইয়াবা ও দু’টি টর্চ লাইট উদ্ধার করা হয়।
 
পরে বড়াইগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দিলিপ কুমার দাস নিহত ব্যক্তির নাম কাবিল হোসেন বলে নিশ্চিত করেন। একই সঙ্গে জানান, তার বিরুদ্ধে থানায় মাদক সংক্রান্ত ১৩টি মামলা রয়েছে। জেলার অন্যতম শীর্ষ মাদক বিক্রেতা হিসেবে তার পরিচিতি রয়েছে।

অপরদিকে, মঙ্গলবার দিনগত রাতে রাজশাহীর বেলপুকুর থানার তাড়াশ এলাকায় র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ আব্দুর রশিদ (৪৫) নামে এক মাদক বিক্রেতা নিহত হয়েছেন।

র‌্যাব-৫ রাজশাহীর উপ-অধিনায়ক মেজর এএফএম আশরাফুল ইসলাম বলেন, তার বিরুদ্ধে রাজশাহী জেলার বিভিন্ন থানায় মাদক, চোরাচালানসহ ১৭টি মামলা রয়েছে। তিনি রাজশাহীর একজন চিহ্নিত মাদক বিক্রেতা।

তিনি আরও জানান, এ সময় ঘটনাস্থল থেকে বিদেশি পিস্তল, ম্যাগজিন, দুই রাউন্ড গুলি, ৫৭ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়েছে।