২১ আগস্ট মামলায় ফরমায়েশি রায়ের শঙ্কা বিএনপির

২১ আগস্ট মামলায় ফরমায়েশি রায়ের শঙ্কা বিএনপির

২১ আগস্ট গ্রেনেড মামলা নিয়ে সরকারের শীর্ষ ব্যক্তিদের বক্তব্যের কারণে ফরমায়েশি রায়ের আশঙ্কা করছে বিএনপি।  শনিবার সকালে রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে দলের সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী এই আশঙ্কা প্রকাশ করেন।

বিএনপির এই নেতা বলেন, একুশে আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায় নিজেরা লিখে আদালতকে দিয়ে তা বাস্তবায়ন করাবেন কি-না, মানুষের মনে সেই সংশয় এখন দেখা দিয়েছে তাদের (সরকার) বক্তব্য শুনে। তাদের বক্তব্য শুনে মনে হয়, একটি ফরমায়েশি রায় হতে যাচ্ছে। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ওবায়দুল কাদের সাহেবরা একুশে আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায়কে প্রভাবিত করতেই দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানকে নিয়ে বেসামাল বক্তব্য রাখছেন। রিজভী বলেন, ওবায়দুল কাদের সাহেব শুক্রবার বলেছেন- রায় হলে সংকটে পড়বে বিএনপি এবং আগামী সেপ্টেম্বরে সেই রায় হবে। কী করে জানলেন তিনি? তিনি তো সরকারের লোক, মন্ত্রী। এটা তো আদালতের বিষয়। এটাই গভীর সন্দেহের বিষয়। গ্রেনেড হামলার এই ঘটনায় খালেদা জিয়ার বড় ছেলে তারেক রহমানকে উদ্দেশ্যমূলকভাবে জড়ানো হয়েছে বলে দাবি করেন এই বিএনপি নেতা। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন-বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা জয়নুল আবদিন ফারুক, আতাউর রহমান ঢালী, খায়রুল কবির খোকন, রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু, আবদুস সালাম আজাদ, তাঁতী দলের সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ, ছাত্রদলের আব্দুস সাত্তার পাটোয়ারী, মৎস্যজীবী দল নেতা আরিফুর রহমান তুষার প্রমুখ নেতৃবৃন্দ।