১৮১০ মিনিট পর স্টার্লিংয়ের গোল

১৮১০ মিনিট পর স্টার্লিংয়ের গোল

গোল করতেই যেন ভুলে গিয়েছিলেন ইংল্যান্ডের রাহিম স্টার্লিং! দেশের জার্সিতে মাঝে ২৭ ম্যাচ কেটে গেলেও গোল পাচ্ছিলেন না ম্যানচেস্টার সিটির এই আক্রমণাত্মক মিডফিল্ডার। অবশেষে ১ হাজার ৮১০ মিনিট পর তিনি গোল পেলেন।

স্টার্লিং শুধু দীর্ঘ গোল-খরাই কাটাননি, করেছেন দুই গোল। তার জোড়া গোলেই নেশনস লিগের ম্যাচে সোমবার রাতে স্পেনকে তাদের মাঠেই ৩-২ গোলে হারিয়েছে ইংল্যান্ড। যেটি ১৯৮৭ সালের পর স্পেনের মাটিতে ইংল্যান্ডের প্রথম জয়।

ইংল্যান্ডের হয়ে স্টার্লিংয়ের অভিষেক ২০১২ সালে। প্রথম গোল পেতে তাকে অপেক্ষা করতে হয়েছে তিন বছর। ২০১৫ সালের মার্চে ওয়েম্বলিতে ইউরোর বাছাইপর্বে লিথুয়ানিয়ার বিপক্ষে ইংল্যান্ডের ৪-০ গোলের ম্যাচে স্টার্লিং করেন একটি গোল। একই বছরের অক্টোবরে একই মাঠে এস্তোনিয়ার বিপক্ষে দলের ২-০ গোলের জয়ে স্টার্লিং ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় গোলটা করেন।


এরপরই শুরু স্টার্লিংয়ের গোল-খরা। একে একে ২৭ ম্যাচ খেলেও জালের দেখা পাচ্ছিলেন না। অবশেষে ১১০২ দিন, ১০১৮ মিনিট পর পেলেন বহুল কাঙ্ক্ষিত গোল। দেশের বাইরে তার প্রথম গোল।

দীর্ঘ গোল-খরা কাটানো নিয়ে ম্যাচ শেষে স্কাই স্পোর্টসকে স্টার্লিং বলেছেন, ‘এটা দারুণ অনুভূতির। আমার ওপর অনেক চাপ ছিল। আমার কাজ গোল করা, সুতরাং এটা অব্যাহত রাখতে হবে। তিন বছর পর গোল পেলাম, এটা আমার কাছে অনেক বড় কিছু।’

ইংল্যান্ডের হয়ে ৪৬ ম্যাচে স্টার্লিংয়ের গোল হলো ৪টি।