১৫ দফা দাবিতে খুলনায় চলছে পেট্রোল পাম্প-ট্যাংকলরি ধর্মঘট

১৫ দফা দাবিতে খুলনায় চলছে পেট্রোল পাম্প-ট্যাংকলরি ধর্মঘট

ট্যাংকলরির ভাড়া বাড়ানোসহ ১৫ দফা দাবিতে খুলনায় দ্বিতীয়দিনের মতো চলছে পেট্রোল পাম্প-ট্যাংকলরি ধর্মঘট।


সোমবারও (২ ডিসেম্বর) শ্রমিকরা পদ্মা, মেঘনা ও যমুনা তিনটি ডিপোর তেল উত্তোলন ও বিপণন বন্ধ রেখে এ কর্মসূচি পালন করছেন।

খুলনাসহ তিন বিভাগের তেল সরবরাহ বন্ধ রয়েছে। একইসঙ্গে বিভাগের তিনশ ৮৭টি পেট্রোল পাম্প বন্ধ রয়েছে। এ কারণে বিপাকে পড়েছেন যানবাহন চালকরা। অনেক রুটে যানবাহন চলাচল বন্ধ রয়েছে। এতে ভোগান্তিতে পড়েছেন যাত্রীরা। পাম্পগুলোতে তেল আনতে গেলে গাড়িচালকদের ফিরিয়ে দেওয়া হচ্ছে।

আরও পড়ুন>>​পেট্রোল পাম্পে ধর্মঘট দ্বিতীয় দিনে, রাজশাহীতে দুর্ভোগ

তারা জানান, তেল না পেলে গাড়ি চলাচল বন্ধ হয়ে যাবে। তাই দ্রুতই এ সমস্যার সমাধান হওয়া জরুরি।

ভাড়ায় মোটরসাইকেলচালক শহিদ  বলেন, মোটরসাইকেলে তেল নিতে না পারায় যাত্রী নিয়ে যেতে পারছি না। কাজও বন্ধ হয়ে গেছে।

বাংলাদেশ পেট্রোল পাম্প ডিলার ডিস্ট্রিবিউটর ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের যুগ্ম-মহাসচিব ও খুলনা বিভাগীয় ট্যাংকলরি ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক মো. ফরহাদ হোসেন  বলেন, তিন বিভাগে চলছে জ্বালানি তেল উত্তোলন, বিক্রি ও পরিবহন বন্ধ রেখে অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতি। দাবি বাস্তবায়ন না হওয়া পর্যন্ত কর্মসূচি চলবে।

তিনি আরও বলেন, সোমবার সকাল ১১টায় ঢাকায় বিপিসিতে জ্বালানি ব্যবসায়ীদের সঙ্গে বিপিসি চেয়ারম্যানের বৈঠক রয়েছে। বৈঠকের পর পরবর্তীকরণীয় বিষয়ে সিদ্ধান্ত জানানো হবে। তবে, পরবর্তী সিদ্ধান্ত না নেওয়া পর্যন্ত কর্মসূচি চলবে।