১৩ বছর পর সাকিব-মুশফিকবিহীন বাংলাদেশ

১৩ বছর পর সাকিব-মুশফিকবিহীন বাংলাদেশ

২০০৫ সালের ইংল্যান্ড সফরে টেস্ট অভিষেক হয়েছিল মুশফিকুর রহীমের। দুই বছর পর ঘরের মাঠে ভারতের বিপক্ষে শুরু সাকিব আল হাসানের টেস্ট ক্যারিয়ার। সাকিবের অভিষেকের পর এ দুজনের একজনও খেলেননি এমন কোনো টেস্ট পায়নি বাংলাদেশ দল।

হ্যামিল্টনের সেডন পার্কে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম টেস্ট খেলতে নেমেই পাওয়া হয়ে গেলো সে স্বাদ। আঙ্গুলের চিড়ের কারণে নিউজিল্যান্ডে যাননি সাকিব আর ইনজুরির কারণে প্রথম টেস্ট থেকে ছিটকে গিয়েছেন মুশফিক। ফলে এ দুজনকে ছাড়াই খেলতে নামতে হলো বাংলাদেশ দলকে।


অভিষেকের পর থেকে শুধু মুশফিককে ছাড়া বাংলাদেশ দল টেস্ট খেলেছেন ১১টি, জয় আসেনি একটিতেও, ড্র হয়েছে ১টি ম্যাচ। একইভাবে সাকিবের অভিষেকের পর তাকে ছাড়া বাংলাদেশ দল টেস্ট ম্যাচ খেলেছে মোট ২২টি। তবে সাকিবকে ছাড়া বাংলাদেশ দল ড্র করেছে ২ ম্যাচ, জিতেছে গতবছর জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচটিতে।

কিন্তু সাকিব-মুশফিক দুজনের একজনও নেই- এমন ম্যাচ সবশেষ কবে খেলেছে বাংলাদেশ? উত্তর পেতে ফিরে যেতে হবে ১৩ বছর আগে। ২০০৬ সালে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজে। ২০০৫ সালে অভিষেক হওয়া মুশফিক সুযোগ পাননি অসিদের বিপক্ষে সে সিরিজে। আর তখনো অভিষেকই হয়নি সাকিব আল হাসানের।

সে সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচটিতে শেষবারের মতো সাকিব বা মুশফিকের কাউকে ছাড়াই খেলতে নেমেছিল টাইগাররা। এরপর থেকে আজকের আগপর্যন্ত খেলা ৭০টি ম্যাচের সবকয়টিতেই ছিলেন সাকিব বা মুশফিকের অন্তত একজন। দুজনই ছিলেন এমন ম্যাচের সংখ্যাটা ৫১টি এবং দুজনের অন্তত একজন ছিলেন এমন ম্যাচ খেলা হয়েছে ৬৮টি।