১০ টাকার জন্য সন্তানকে গলা টিপে হত্যা

১০ টাকার জন্য সন্তানকে গলা টিপে হত্যা

লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলায় মায়ের কাছে ১০ টাকা চাওয়ায় মো. কাউছার  (৭) নামে এক শিশুকে শ্বাসরোধ করে হত্যার অভিযোগ উঠেছে তার জন্মদাত্রী মায়ের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় শিশুটির মা স্বপ্না বেগমসহ চারজনকে আটক করেছে পুলিশ।


মঙ্গলবার (১৫ অক্টোবর) সকালে উপজেলার দক্ষিণ চররুহিতা এলাকা থেকে মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এর আগে, সোমবার (১৪ অক্টোবর) রাতে ওই শিশুকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে তার মা স্বপ্না। কাউছার লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার চররুহিতা এলাকার পিকআপ ভ্যানচালক রাসেলের ছেলে। সে স্থানীয় লোকমানিয়া হাফিজিয়া মাদ্রাসার প্রথম শ্রেণির ছাত্র ছিল।

স্থানীয়রা জানায়, গাড়ি চালানোর কাজে বেশির ভাগ সময় বাড়ির বাইরে থাকেন স্বপ্নার স্বামী রাসেল। এ সুযোগে উশৃঙ্খল জীবনযাপন করতেন স্বপ্না। সোমবার রাতে মায়ের কাছে ছেলে কাউছার ১০ টাকা চাইলে তাকে মারধর করে গলা টিপে ধরেন মা। কিছুক্ষণ পর সন্তান মারা গেছে বলে চিৎকার দিয়ে কান্নাকাটি শুরু করেন স্বপ্না। 

লক্ষ্মীপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আজিজুর রহমান  জানান, দীর্ঘদিন ধরে স্বপ্নার স্বামীর দ্বিতীয় বিয়ে ও অর্থনৈতিক সংকট নিয়ে তাদের সংসারে ঝগড়া-বিবাদ চলছিল। রাতে শিশু কাউসার তার মায়ের কাছে ১০ টাকা চাইলে ক্ষিপ্ত হয়ে তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়। পরে খবর পেয়ে পুলিশ সন্দেহভাজন হিসেবে স্বপ্নাসহ চারজনকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে স্বপ্না সন্তানকে গলা টিপে হত্যার কথা স্বীকার করেছেন।

এ ঘটনায় হত্যা মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানান ওসি আজিজুর।