১ অক্টোবর থেকে আন্দোলনের সর্বাত্নক প্রস্তুতি নিতে বললেন মওদুদ

১ অক্টোবর থেকে আন্দোলনের সর্বাত্নক প্রস্তুতি নিতে বললেন মওদুদ

বিএনপির নেতা-কর্মীদের ঐক্যবদ্ধ হয়ে আগামী ১ অক্টোবর থেকে সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলনের সর্বাত্মক প্রস্তুতি নিতে বলেছেন দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে জাতীয়তাবাদী প্রজন্ম-৭১ এর উদ্যোগে এক আলোচনা সভায় এই আহ্বান জানান তিনি। তবে ১ অক্টোবর তারিখটি তিনি নির্দিষ্ট করে কেন বললেন, সে বিষয়ে কোনো ব্যাখ্যা পাওয়া যায়নি মওদুদের কথায়। বিএনপির এই নীতি-নির্ধারক বলেন, আমরা এবার খালি মাঠে গোল দিতে দেব না। জনগণকে নিয়েই আমরা থাকব।

জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়াকে শক্তিশালী করতে নেতা-কর্মীদের মাঠে নামার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, স্বৈরাচারী সরকারকে অপসারণ করতে হলে সারা জাতিকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়াকে আরও শক্তিশালী করতে হবে। মাঠে নামতে হবে। জনগণের জোয়ার এই সরকারকে দেখাতে হবে এবং তা দেখবে সরকার। মওদুদ আহমদ বলেন, জনগণকে সাথে নিয়ে বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করে আমরা আগামী নির্বাচনে অংশগ্রহণ করে এই সরকারকে বিদায় করব। তা করব শান্তিপূর্ণভাবে ভোটের মাধ্যমে, কোনো ভায়োলেন্সের মাধ্যমে নয়। জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়া নিয়ে নিউইয়র্কে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দেয়া বক্তব্যের জবাবে বিএনপি নেতা মওদুদ বলেন, প্রধানমন্ত্রীর কথায় একটা জিনিস স্পষ্ট হয়েছে- এই সরকার আতঙ্কিত ও বিচলিত হয়েছে জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার অগ্রগতি দেখে। সে কারণে আজকে তাদের গাত্রদাহ। প্রধানমন্ত্রীসহ সরকারের কেউ এটা সহ্য করতে পারছেন না। প্রধানমন্ত্রীকে তার বক্তব্য প্রত্যাহারের অনুরোধ জানিয়ে তিনি বলেন, আপনি ওই বক্তব্য প্রত্যাহার করুন।

তা না হলে রাজনীতিতে কোনো শালীনতা আর থাকবে না। অনুষ্ঠানে প্রধান আলোচকের বক্তব্যে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু আশাবাদ ব্যক্ত করে বলেন, গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে নিরপেক্ষ নির্বাচনের দাবিতে জাতীয় ঐক্য গঠনের যে প্রক্রিয়া চলছে- সেটি দেশের মানুষকে অন্ধকার থেকে আলোর পথ দেখাবে। তিনি বলেন, ড. কামাল হোসেনের ডাকে আমাদের দলের সিনিয়র নেতারা জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার সমাবেশে গিয়েছিলেন। তারা বাংলাদেশকে কালো অন্ধকার থেকে আলোর পথ দেখানোর জন্য সেখানে গিয়েছিলেন। সে আলোর পথের যাত্রীরা কখনো থেমে থাকতে পারে না। তাই দেশ বাঁচাতে এবং গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে আমাদের সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হতেই হবে, রাস্তায় নামতেই হবে। এর কোনো বিকল্প নেই। সংগঠনের সভাপতি ঢালী আমিনুল ইসলাম রিপনের সভাপতিত্বে এতে আরো বক্তব্য দেন-বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা আশরাফ উদ্দিন বকুল, আবদুস সালাম আজাদ, রফিক শিকদার প্রমুখ নেতৃবৃন্দ।