হুয়াওয়ের ৮৮০ ডলারের ফোনে নেই ফেসবুক!

হুয়াওয়ের ৮৮০ ডলারের ফোনে নেই ফেসবুক!

যেভাবে এগোচ্ছিল হুয়াওয়ে তাতে স্মার্টফোনের বাজারে আধিপত্য বিস্তারে বেশি সময় নেবে না তারা- এমন ধারণা ছিল প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞদের। যুক্তরাষ্ট্রে চীনা এ প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানকে কালো তালিকাভুক্তকরণের মাধ্যমে হুয়াওয়ের শনৈঃ শনৈঃ উন্নতিতে দেওয়া হয়েছে বাঁধ। বিশ্বে স্মার্টফোন বিক্রিতে প্রথম স্থানে থাকা স্যামসাংকে হটাতে না পারলেও চীনে ঠিকই বাড়ছে হুয়াওয়ের আধিপত্য।


সম্প্রতি মেট ৩০ বাজের আনে হুয়াওয়ে। এর বাজার মূল্য ৮৮০ ডলার থেকে শুরু। এত দামি এ স্মার্টফোনে পাওয়া যাবে না গুগল প্লে স্টোরের সেবা। নেই গুগল ম্যাপস, উবার অথবা ফেসবুকের মতো জনপ্রিয় অ্যাপলিকেশনও। নিজস্ব ‘হংমেং’ এর বদলে এ স্মার্টফোনে ব্যবহার করা হয়েছে অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম। সবমিলিয়ে গুগলের সেবা ছাড়া হুয়াওয়ে বিশ্বের স্মার্টফোন বাজারে বেশ চ্যালেঞ্জের মুখেই পড়তে যাচ্ছে।

হুয়াওয়ে বিশ্বের বৃহৎ টেলিকমিউনিকেশন যন্ত্রাংশ প্রস্তুতকারী ও দ্বিতীয় স্মার্টফোন বিক্রেতা। তবে, যুক্তরাষ্ট্রে কালো তাকিলাভুক্ত হওয়ার কারণে সংকুচিত হচ্ছে দ্রুত বর্ধনশীল এ প্রতিষ্ঠানের বৈশ্বিক বাজার। কেননা, যুক্তরাষ্ট্র তার মিত্র দেশ এবং বিভিন্ন প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানকে হুয়াওয়ের সঙ্গে বাণিজ্যে পরোক্ষভাবে বাধা দিচ্ছে। যার কারণে হুয়াওয়ের স্মার্টফোনগুলোতে মিলছে না গুগলের সেবা। এছাড়া বাধাগ্রস্ত হচ্ছে প্রতিষ্ঠানের অন্য প্রযুক্তির উন্নয়নেও।

বাজার গবেষণা প্রতিষ্ঠান ক্যানালিস এবং আইডিসির তথ্য মতে, পরিস্থিতি হুয়াওয়েকে দেশের অভ্যন্তরে স্মার্টফোন বিক্রিতে বাধ্য করছে। একইসঙ্গে চীনের অর্থনীতিতে দেখা দিয়েছে ধীরগতি।

ক্যানালিসের বিশ্লেষক বেন স্ট্যানটন বলেন, হুয়াওয়ে যদিও তার সব সম্ভাবনা চীনের মধ্যেই সীমাবদ্ধ রাখেনি। কিন্তু পরিস্থিতি তাকে গলা টিপে ধরেছে!

গুগলের সেবা ওই স্মার্টফোনে পাওয়া না গেলেও খুব একটা অসুবিধায় পড়বেন না চীনা ব্যবহারকারীরা। কারণ বিশ্বেজুড়ে জনপ্রিয় বেশ কিছু অ্যাপলিকেশন দেশটিতে বহু বছর থেকেই নিষিদ্ধ। তারা এর স্থানীয় বিকল্পও ইতোমধ্যে দাঁড় করিয়ে ফেলেছে। কিন্তু বৈশ্বিক বাজার ধরতে হুয়াওয়ে কোন পথে আগাবে সেটা নিয়ে এখন দেখা দিয়েছে ধোঁয়াশা।

আইডিসির বিশ্লেষক মেলিসা চাও বলেন, হুয়াওয়ে হয়তো নিজ দেশের বাজারের চাহিদা মেটাতে পারবে কিন্তু বৈশ্বিক বাজারের ক্ষেত্রে তারা কী করবে? আমদানিকারক এবং বিক্রেতারা হুয়াওয়ের স্মার্টফোন নিয়ে ধন্দে রয়েছেন। তারাও নিশ্চিত নন, গুগলের সেবা ছাড়া হুয়াওয়ে কীভাবে পথ চলবে।

অ্যান্ড্রয়েডচালিত ১৯৬ গ্রামের এই স্মার্টফোনটি সেপ্টেম্বরে বাজারে আনে হুয়াওয়ে। ৬ দশমিক ৬২ ইঞ্চি পর্দার এ ফোনের রয়েছে ৬ ও ৮ জিবি র‌্যামের দুটি ভার্সনের। দুটিরই স্টোরেজ ১২৮ জিবি আর ব্যাটারি ৪ হাজার ২০০ এমএএইচ।