হারাগাছে ছাত্রী অপহরণে জড়িত টাইগার গ্যাংয়ের ৪ সদস্য গ্রেফতার

হারাগাছে ছাত্রী অপহরণে জড়িত টাইগার গ্যাংয়ের ৪ সদস্য গ্রেফতার

রংপুর জেলা প্রতিনিধি: রংপুরের হারাগাছে ছাত্রী অপহরণে জড়িত টাইগার গ্যাংয়ের ৪ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় তদন্তকালে পুলিশ চাঞ্চল্যকর তথ্য উদঘাটন করেছে। শনিবার দুপুরে হারাগাছ থানায় সংবাদ সম্মেলনে এসব চাঞ্চল্যকর তথ্য জানান রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার আবু সুফিয়ান।সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের হারাগাছ থানার বধূকমলা এলাকায় দিনারের ইট ভাটার সামনে থেকে গত ২৬ অক্টোবর এক ছাত্রীকে মাইক্রোবাসে অপহরণ করে নিয়ে যাওয়ার ঘটনায় হারাগাছ থানায় মামলা দায়ের করা হয়। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মামলার এজাহারনামীয় ৪ আসামী হারাগাছ থানার সারাই নিউ কাজীপাড়া (কসাইটারী) এলাকার  শুকুর আলী (১৯), আলম হোসেন (২২), মনারুল ইসলাম (২৩) (মাইক্রোচালক), নাসিম মাহমুদ নাহিদকে (১৯) গ্রেফতার করে এবং ভিকটিমকে উদ্ধার করেন। এসময় অপহরণের কাজে ব্যবহৃত মাইক্রোবাসটি জব্দ করেন।

মামলাটি তদন্তকালে রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের পুলিশ কমিশনার আবদুল আলীম মাহমুদ মামলাটির রহস্য উম্মোচনে সার্বক্ষণিক গুরুত্বপূর্ণ দিক-নির্দেশনা প্রদান করেন। এছাড়াও মামলাটির সার্বিক তদন্ত ও জড়িত আসামীদের সনাক্তকরণে সহযোগিতা করেন অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (অপরাধ) শহিদুল্লাহ কাওছার।রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের সহকারী পুলিশ কমিশনার (মাহিগঞ্জ জোন) ফারুক আহমেদ জানান, মামলার এজাহারনামীয় গ্রেফতারকৃত ও পলাতক আসামীগণ ‘‘টাইগার’’ নামে একটি গ্যাংয়ের সাথে জড়িত।

 সহকারী পুলিশ কমিশনার (মাহিগঞ্জ জোন) ফারুক আহমেদের নেতৃত্বে বিভিন্ন স্থানে ব্যাপক অভিযান পরিচালনা করে গ্যাং লিডার আশিকুর রহমান চৌধুরী ও মাহিন ইসলাম তোবেল-কে গ্রেফতার করা হয়।আরপিএমপির সহকারী পুলিশ কমিশনার  (হেডকোয়ার্টার্স এন্ড মিডিয়া) রেজানুর বেগম জানান, মামলাটির এজাহারনামীয় আসামী আসাদুজ্জামান শুভ’র সাথে ভিকটিমের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। শুভ ভিকটিমকে মাইক্রোতে করে বিভিন্ন স্থানে বেড়াতে নিয়ে গিয়েছিল। এরপর শুভ ভিকটিমের বাড়িতে একাধিকবার বিয়ের প্রস্তাব পাঠায়। মেয়ের বিয়ের বয়স না হওয়ায় ভিকটিমের পিতা প্রতিবারই প্রস্তাব নাকোচ করে দেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে শুভ ও টাইগার গ্যাংয়ের সদস্যরা ওই ছাত্রীকে অপহরণ করে নিয়ে যাওয়ার সময় পুলিশের হাতে আটক হয়।