স্বস্তির ঈদযাত্রার প্রতিশ্রুতি ওবায়দুল কাদেরের

স্বস্তির ঈদযাত্রার প্রতিশ্রুতি ওবায়দুল কাদেরের

বর্ষা মৌসুমে বেহাল মহাসড়ক আশঙ্কা জাগালেও এবার ঈদযাত্রায় মানুষকে স্বস্তি দেওয়ার আশা প্রকাশ করেছেন সড়ক পরিবহনমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

সোমবার এক ফেইসবুক পোস্টে এই আশাবাদ প্রকাশ করে সড়ক নিয়ে কোনো ধরনের ‘বিভ্রান্তিকর তথ্য’ প্রচার না করার অনুরোধও করেছেন তিনি।

বিভিন্ন স্থানে নির্মাণ কাজের মধ্যে এবার বর্ষা শুরুর আগেই ভারী বর্ষণে বিভিন্ন মহাসড়ক বেহাল হয়ে পড়েছে বলে ঈদযাত্রা নিয়ে আশঙ্কাও প্রকাশ করেছেন অনেকে।

এরমধ্যেই ফেইসবুকে ওবায়দুল কাদের লিখেছেন, “এবারের ঈদযাত্রা স্বস্তিদায়ক করতে মন্ত্রণালয় সজাগ রয়েছে। বৃষ্টিজনিত ক্ষতিগ্রস্ত সড়ক মেরামতে দেওয়া হয়েছে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা। অতিবৃষ্টিতে যান চলাচলে ধীরগতি হলেও যানজট হবে না। আমাদের প্রচেষ্টা অবিরত, অব্যাহত। আশা করা যাচ্ছে, এবারের ঈদযাত্রা গতবারের চেয়ে আরও স্বস্তিদায়ক হবে।

“এ নিয়ে কোনো ধরনের বিভ্রান্তিকর তথ্য প্রচার করে সড়ক সম্পর্কে কোনোরূপ আতঙ্ক সৃষ্টি না করতে জনস্বার্থে সকলের প্রতি অনুরোধ জানাচ্ছি।”

কোন মহাসড়কের কী অবস্থা, সেই সম্পর্কেও লিখেছেন মন্ত্রী।

“ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের ফেনী রেলওয়ে ওভারপাসের দু'লেইন ইতোমধ্যে যানবাহন চলাচলের জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়া হয়েছে। সেখানে এখন আর যানজট হচ্ছে না। ১৫ জুনের মধ্যে নির্মাণকাজ পুরোপুরি শেষ হবে। তখন সম্পূর্ণ যানজটমুক্ত হবে ফেনী রেলওয়ে ওভারপাস এলাকা।”

ময়নামতি-সরাইল সড়ক মেরামত ও সংস্কারের পাশাপাশি মেঘনা ও মেঘনা-গোমতী সেতুর টোলপ্লাজায় টোল আদায় ব্যবস্থাপনা আরও উন্নত করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

ঢাকা-ময়মনসিংহ ও উত্তরাঞ্চলগামী যাত্রীদের সুবিধায় এয়ারপোর্ট-জয়দেবপুর বাস র‌্যাপিড ট্রানজিট-বিআরটি প্রকল্পের সড়ক অংশের কাজ ঈদের আগে বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে জানান তিনি।

অতিবর্ষণে ক্ষতিগ্রস্ত জেলা সড়কের মেরামত কাজ আগামী ৮ জুনের মধ্যে শেষ করার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে বলে জানান মন্ত্রী।

তিনি লিখেছেন, বাগেরহাট-চিতলমারী-পাটগাতি সড়কের কাজ শুরু হয়েছে। যশোর-বেনাপোল, যশোর-ঝিনাইদহ এবং যশোর-মাগুরা সড়কের কাজ শেষ হয়েছে। টেকেরহাট -বাকেরগঞ্জ সড়কের দেড় কিলোমিটারের কাজ চলমান রয়েছে, এছাড়া সড়কের বাকী অংশ সচল রয়েছে। সিলেট-কোম্পানীগঞ্জ সড়কের নির্মাণকাজ এগিয়ে চলেছে।