সেঞ্চুরির পথে মাহমুদউল্লাহ, ব্যর্থ আশরাফুল

সেঞ্চুরির পথে মাহমুদউল্লাহ, ব্যর্থ আশরাফুল

সেঞ্চুরি থেকে ৫ রান দূরে থাকতেই অপরাজিত ব্যাটসম্যান হিসেবে তৃতীয় দিন শেষ করেছেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। তার ব্যাটের উপর ভর করে জাতীয় ক্রিকেট লিগে টায়ার টু’র দ্বিতীয় রাউন্ডে সিলেট বিভাগের বিপক্ষে ১৫২ রানের লিড নিয়েছে ঢাকা মেট্রো। 


শনিবার (১৯ অক্টোবর) বগুড়ার শহীদ চান্দু স্টেডিয়ামে ৬ উইকেটে ২২৫ রান নিয়ে তৃতীয় দিন শেষ করেছে ঢাকা মেট্রো। এর আগে তারা প্রথম ইনিংসে করে ২৪৬ রান। সিলেট প্রথম ইনিংসে করে ৩১৯ রান। 

তৃতীয় দিন শুরু করেন ঢাকা মেট্রোর দুই অপরাজিত ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ নাঈম ও রাকিন আহমেদ। তবে বেশিদূর এগোতে পারেননি তারা। দিন শুরু করে সিলেটের বোলারদের সামনে বিপর্যয়ে পড়ে আরাফাত সানির দল। তবে সেই বিপর্যয় সামাল দেয় মাহমুদউল্লাহর ব্যাট। ৭৪ রানে ৪ উইকেট হারানো ঢাকা মেট্রোকে দুইশ পেরোনো সংগ্রহ এনে দেন তিনি। আগামীকাল চতুর্থ ও শেষদিন শুরু করবেন মাহমুদউল্লাহ ও ২৯ রানে অপরাজিত থাকা শহীদুল ইসলাম। 

সিলেটের হয়ে দু’টি করে উইকেট নিয়েছেন এনামুল হক জুনিয়র ও ইমরান আলী। একটি করে উইকেট শিকার করেছেন রেজাউর রহমান ও রাহাতুল ফেরদৌস। 

টায়ার টু’র দ্বিতীয় রাউন্ডের আরেক ম্যাচে বরিশাল বিভাগের বিপক্ষে ১৯০ রানে এগিয়ে গেছে চট্টগ্রাম বিভাগ। দ্বিতীয় ইনিংসে ১ উইকেট হারিয়ে ৫০ রান নিয়ে তৃতীয় দিন শেষ করেছে তারা। প্রথম ইনিংসে ৩৫৬ রান করেছিল বন্দর নগরীর দলটি। বরিশাল নিজেদের প্রথম ইনিংসে অলআউট হয় ২১৬ রানে। 

শনিবার (১৯ অক্টোবর) তৃতীয় দিন শুরু করেছিলেন বরিশালের মোহাম্মদ আশরাফুল ও মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। কিন্তু দিন শুরু করে নিজের নামের পাশে কোনো রান যোগ না করে সাজঘরে ফেরেন মোসাদ্দেক (৪)। থিতু হয়েও ইনিংস বড় করতে পারেননি আশরাফুল। ব্যক্তিগত ২১ রানে মেহেদী হাসান রানার এলবিডব্লিউ’র ফাঁদে পড়েন তিনি।

নিয়মিত উইকেট হারাতে থাকা বরিশাল দুইশ পেরোনো সংগ্রহ পায় নুরুজ্জামানের সুবাদে। ৬০ রান এসেছে তার ব্যাট থেকে। চট্টগ্রামের হয়ে সর্বোচ্চ ৪ উইকেট নিয়েছেন নাঈম হাসান। দু’টি করে উইকেট নিয়েছেন মেহেদী হাসান রানা, নোমান চৌধুরি ও মিনহাজুল আবেদীন আফ্রিদি। 

আগামীকাল শেষদিন শুরু করবেন চট্টগ্রামের দুই অপরাজিত ব্যাটসম্যান পিনাক ঘোষ (৩০) ও অধিনায়ক মুমিনুল হক (৯)।