সুষ্ঠু পরিবেশ আদায় করে নিতে হবে: ড. কামাল

সুষ্ঠু পরিবেশ আদায় করে নিতে হবে: ড. কামাল

ভোটকেন্দ্রে যাতে কোনো ‘দুই নম্বরি’ না হয়, সে জন্য সকাল থেকে জনগণকে ভোটকেন্দ্র পাহারা দিতে আবারও আহ্বান জানিয়েছেন ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ড. কামাল হোসেন।

ভোরে নামাজ পড়েই ভোটকেন্দ্রে অবস্থান নিতে জনগণকে আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের জন্য সুষ্ঠু ভোটের পরিবেশ আদায় করে নিতে হবে।

বুধবার (১২ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় সিলেটে হযরত শাহজালাল (র.)-এর মাজার জিয়ারতের পর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের প্রচারণা শুরু আগ মুহূর্তে এমন আহ্বান জানান ড. কামাল হোসেন।

তিনি বলেন, সুষ্ঠু নির্বাচন না হলে জনগণ দেশের মালিক থাকে না। জনগণ মালিক না থাকলে স্বাধীনতা হারাতে হয়। বাড়ির মালিক যেমন সবাইকে নিয়ে সম্পত্তি রক্ষা করেন, তেমনি জনগণকেও ঐক্যবদ্ধ হয়ে দেশের মালিকানা রক্ষা করতে হবে। এ জন্যই ঐক্যফ্রন্ট গঠন করা হয়েছে।

ড. কামাল হোসেন আরো বলেন, নির্বাচন কমিশন সুষ্ঠু নির্বাচনের প্রতিশ্রুতি দিলেও তা পালন করছে না। প্রতিদিন বিভিন্ন জায়গা থেকে টেলিফোনে ধর-পাকড়ের খবর পাচ্ছি।

তিনি বলেন, আমরা ঐক্যফ্রন্ট করেছি, ঐক্যবদ্ধ থাকলে সরকার অসৎ উদ্দেশ্য হাসিল করতে পারবে না। আমাদের ইতিহাসে দেখেছি, জনগণ যখন ঐক্যবদ্ধ হয়েছে তখন দাবি আদায় করতে পেরেছে।

ঐক্যফ্রন্ট সব জায়গা থেকে অসাধারণ সাড়া ফেলেছে উল্লেখ করে গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন বলেন, সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য আমরা সব জায়গায় যাবো, জনগণকে বোঝাবো আপনারা দেশের মালিক, মালিকানা রক্ষা করেন। ভোট না দিতে পারলে দেশের মালিকানা ধ্বংসের পথে চলে যাবে।

নেতাকর্মীদের মাঠে থাকার আহ্বান জানিয়ে ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, জেলখানা ফুল (ভরে গেছে)  হয়ে গেছে। আপনাদের ধরে ধরুক, এখন আর জেলে জায়গা নাই।

কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী বলেন, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সারা দেশে ঐক্যফ্রন্টের একমাত্র প্রার্থী খালেদা জিয়া। ঐক্যফ্রন্টের অন্যরা সবাই তার প্রতীক।

তিনি বলেন, ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বে ঐক্যফ্রন্টের বিজয় নিয়ে কোনো সন্দেহ নেই। রাস্তায় জিজ্ঞেস করবেন, ১০ জন লোকের মধ্যে ৮ জন একথাই বলবে। ভোটারের বিজয় তথা জনগণের বিজয় এবার ছিনিয়ে আনা হবে, এ বিজয় কেউ আটকাতে পারবে না।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান বলেন, এই দেশে যখন দুঃসময় ছিল, অত্যাচারে ছেয়ে গিয়েছিল—তখন হযরত শাহজালাল (র.) এখানে (সিলেটে) এসেছিলেন। আজকেও দেশটা দুঃশাসনে ছেয়ে গেছে। তাই ড. কামাল হোসেনকে নিয়ে এখানে মাজার জিয়ারত করে দোয়া চাইতে এসেছি।

বুধবার বিকেল ৪টা ১০ মিনিটে ঐক্যফ্রন্ট নেতারা সিলেট ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে পৌঁছান। সেখান থেকে সরাসরি হযরত শাহজালাল (র.)-এর মাজার জিয়ারতে যান।

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নির্বাচনী প্রচারণায় অংশ নিতে ড. কামাল হোসেনের সঙ্গে সিলেটে এসেছেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জেএসডি’র সভাপতি আ স ম আব্দুর রব, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর আব্দুল কাদের সিদ্দিকী ও বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান প্রমুখ।