সীমান্তে উত্তেজনা: মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূতকে তলব

সীমান্তে উত্তেজনা: মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূতকে তলব

বাংলাদেশ সীমান্তে মিয়ানমারের অতিরিক্ত সেনা মোতায়েনের প্রেক্ষাপটে ঢাকায় নিযুক্ত দেশটির রাষ্ট্রদূত লুইন উকে তলব করা হয়েছে।  বৃহস্পতিবার (১ মার্চ) বিকেলে তাকে তলব করে বাংলাদেশের পক্ষ থেকে একটি নোট ভারবাল (আনুষ্ঠানিক পত্র) ধরিয়ে দেন ভারপ্রাপ্ত পররাষ্ট্র সচিব এম খোরশেদ আলম।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একটি সূত্র জানায়, নাইক্ষ্যংছড়ি ও তামরু সীমান্তে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর অতিরিক্ত সেনা মোতায়েন করায় তলব করা হয়েছে রাষ্ট্রদূত লুইনকে। তার কাছে এ বিষয়ে জানতে চাওয়া হয়।

বাংলাদেশ থেকে রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে ঢাকার সঙ্গে আলোচনার মধ্যে বেশ কয়েকদিন ধরে সীমান্তে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী অবস্থান জোরদার করেছে। তারা নো ম্যানসল্যান্ড বা জিরো পয়েন্টে থাকা রোহিঙ্গাদের স্বদেশে ফেরত যেতে বাধা দিচ্ছে।

এই পরিস্থিতিতে বৃহস্পতিবার পিলখানায় বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) সদরদফতরে সংবাদ সম্মেলন ডেকে বাহিনীর অতিরিক্ত মহাপরিচালক (অপারেশন) ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মুজিবুর রহমান জানান, মিয়ানমারের সেনা সদস্যরা ভারী অস্ত্র ও গোলাবারুদ নিয়ে সীমান্তে অবস্থান নিয়েছে। এ প্রেক্ষিতে সীমান্তে সতর্ক অবস্থানে রয়েছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)।

গত আগস্টে মিয়ানমার সেনাবাহিনী রাখাইনে দমন-পীড়ন শুরু করলে প্রায় ৭ লাখ রোহিঙ্গা পালিয়ে বাংলাদেশ আশ্রয় নেয়। সবমিলিয়ে এ দেশে আশ্রিত রোহিঙ্গার সংখ্যা ১০ লাখেরও বেশি। আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের চাপের মুখে নেপিদো তাদের এই বিপুল জনগোষ্ঠীকে প্রত্যাবাসনে সমঝোতায় পৌঁছালেও হঠাৎ সীমান্তে তাদের অস্ত্র-গোলাবারুদ জমার কার্যক্রম বিস্মিত করছে ঢাকাকে।