সামরিক শক্তিতে ১১ ধাপ এগিয়েছে বাংলাদেশ

সামরিক শক্তিতে ১১ ধাপ এগিয়েছে বাংলাদেশ

সামরিক শক্তির দিক থেকে এখন বিশ্বের ১৩৬টি দেশের মধ্যে ৪৫তম শক্তিশালী দেশ বাংলাদেশ। বিশ্বব্যাপী সামরিকবিষয়ক গবেষণা গ্লোবাল ফায়ারের ২০১৯ সালের প্রতিবেদনে এ তথ্য উঠে এসেছে। ২০১৮ সালে বাংলাদেশের অবস্থান ছিল ৫৬তম। ফলে এবার ১১ ধাপ এগোলো বাংলাদেশ।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সার্বিক বিবেচনায় বিশ্বের ১৩৬টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশের সামরিক বাহিনীর অবস্থান এখন বিশ্বের ৪৫তম।

তালিকায় থাকা প্রথম ২০ দেশ- ১. যুক্তরাষ্ট্র, ২. রাশিয়া, ৩. চীন, ৪. ভারত, ৫. ফ্রান্স, ৬. জাপান, ৭. দক্ষিণ কোরিয়া, ৮. যুক্তরাজ্য, ৯. তুরস্ক, ১০. জার্মানি, ১১. ইতালি, ১২. মিসর, ১৩. ব্রাজিল, ১৪. ইরান, ১৫. পাকিস্তান, ১৬. ইন্দোনেশিয়া, ১৭. ইসরায়েল, ১৮. উত্তর কোরিয়া, ১৯. অস্ট্রেলিয়া ও ২০. স্পেন।

আর মিয়ানমারের অবস্থান ৩৭তম, পাকিস্তানের ১৫তম।

এ জরিপে কোনও দেশের পরমাণু শক্তির বিষয়টি ধর্তব্যে নেয়া হয়নি। তবে স্বীকৃত ও সন্দেহভাজন পরমাণু শক্তিধর দেশগুলোকে বিশেষ বিবেচনায় রাখা হয়।

কেবল একটি দেশের সামরিক সরঞ্জামের সংখ্যা দিয়ে এই শক্তিমত্তার বিষয়টি নির্ণয় করা হয়নি। বরং দেশটির সামরিক সরঞ্জাম কতটা বৈচিত্র্যপূর্ণ, সেটিও বিবেচনায় নেয়া হয়েছে।