সাতকানিয়ায় অপহৃত শিশু চকরিয়ায় উদ্ধার, আটক ২

সাতকানিয়ায় অপহৃত শিশু চকরিয়ায় উদ্ধার, আটক ২

চট্টগ্রামের সাতকানিয়া থেকে অপহরণের চারদিন পর তসলিমা আক্তার মাইশা (৭) নামে এক শিশুকে কক্সবাজারের চকরিয়া থেকে উদ্ধার করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) সদস্যরা। এ সময় অপহরণের সঙ্গে জড়িত দু’জনকে আটক করা হয়েছে।

সোমবার (২৩ এপ্রিল) দিবাগত রাতে চকরিয়া পৌরসভার পালাকাটা এলাকা থেকে শিশুটিকে উদ্ধার করা হয়। এর আগে বৃহস্পতিবার (১৯ এপ্রিল) বিকেল ৫টার দিকে সাতকানিয়া উপজেলার রাস্তারমাথা এলাকা থেকে অপহৃত হয় মাইশা।

মাইশা চট্টগ্রামের রাস্তারমাথা দাইমারখীল-দক্ষিণ ঢেমশা এলাকার রিকশাচালক আবদুল গফুরের মেয়ে। আটকরা হলেন- কক্সবাজারের চকরিয়া পালাকাটা এলাকার বদিউল আলমের ছেলে মমিনুল ইসলাম (১৯) ও একই এলাকার শাহাবুদ্দিনের স্ত্রী মনোয়ারা বেগম (৩৫)।

র‌্যাব সূত্রে জানা গেছে, ১৯ এপ্রিল বিকেলে সাতকানিয়ার রাস্তারমাথা এলাকায় নিজ বাড়ির সামনে থেকে অপহরণ হয় মাইশা। পরে শিশুটির পরিবারের কাছে ফোন করে দুই লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে অপহরণকারীরা। শেষ পর্যায়ে ৭০ হাজার টাকা দাবি করে বলা হয় মুক্তিপণের টাকা না পেলে শিশুটিকে হত্যা করা হবে।

শুক্রবার (২০ এপ্রিল) র‌্যাব-৭ কক্সবাজার ক্যাম্পে লিখিত অভিযোগ করেন শিশুটির বাবা আবদুল গফুর। পরে সোমবার (২৩ এপ্রিল) রাতে চকরিয়ার পালাকাটা এলাকায় অভিযান চালিয়ে অপহৃত শিশু মাইশাকে উদ্ধার করা হয়। এ সময় আটক করা হয় মমিনুল ও মনোয়ারা বেগম নামে দুই অপহরণকারীকে।

র‌্যাব-৭ কক্সবাজার ক্যাম্পের ইনচার্জ মেজর মো. রুহুল আমিন বলেন, আটক ওই দুই নারী-পুরুষকে ভিকটিমসহ সাতকানিয়া থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।