সাকিবের জন্মদিনে হায়দরাবাদের ‘সারপ্রাইজ’ গিফট

সাকিবের জন্মদিনে হায়দরাবাদের ‘সারপ্রাইজ’ গিফট

ম্যাচ হারলেও জন্মদিনে সাকিব আল হাসানকে ‘সারপ্রাইজ’ গিফট দিতে ভোলেনি আইপিএলে তার ফ্র্যাঞ্চাইজি সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। বল হাতে শেষ ওভারে ১৩ রান বাঁচাতে পারলে নিজের জন্মদিনের উপহার নিজেই আনতে পারতেন সাকিব।

তা হয়নি, সানরাইজার্স হায়দরাবাদ ম্যাচ হেরে গিয়েছে ৬ উইকেটের ব্যবধানে। তবে টিম হোটেলে ফিরে আর পরাজয়ের গ্লানি মনে রাখেনি হায়দরাবাদ ফ্র্যাঞ্চাইজি। তারা মেতে উঠেছে সাকিব আল হাসানের জন্মদিন উদযাপনে।
ইডেন গার্ডেনসে ম্যাচ শেষ করে টিম হোটেলে ফিরে লাউঞ্জে দাঁড়িয়ে নিজের ৩২তম জন্মদিনের কেক কেটেছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। হায়দরাবাদে তার সতীর্থরা এসময় শুভেচ্ছা ও শুভকামনা জানায়।
তবে সাকিবের জন্য সারপ্রাইজ বাকি ছিলো তখনো। লাউঞ্জে কেক কাটা পর্ব শেষ করে নিজের রুমে ফিরে যান তিনি। এসময় হায়দরাবাদ টিম ম্যানেজম্যান্টের একজন যান সাকিবের রুমে। তাকে ডেকে দেখান মোবাইল ফোনে ধারণ করা একটি ভিডিও।

কি ছিলো সেই ভিডিওতে? মেয়ে আলাইনা হাসান অব্রির করা বাবার জন্মদিনের শুভেচ্ছা ছিলো সেই ভিডিওতে। পেশাগত ব্যস্ততায় বাবার জন্মদিনে তাকে কাছে না পেলেও, তথ্য প্রযুক্তির এ যুগে ভিডিও বার্তায় শুভেচ্ছা জানিয়েছে ছোট্ট আলাইনা।
যেখানে তিনি স্পষ্ট ভাষায় বলেন, ‘হ্যাপি বার্থডে, বাবা’। এ ভিডিও দেখে সাকিবের চোখে-মুখে ফুটে ওঠে আনন্দের আভা। দূর দেশে বসে মেয়ের কাছ থেকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা পেয়ে খানিক আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন তিনি। এমন সারপ্রাইজের জন্য হায়দরাবাদ কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ জানান সাকিব।

এর আগে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকেও নিজের ভক্ত-সমর্থকদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান সাকিব। তিনি লিখেন, ‘আমার ভক্তরা আমাকে যে নিঃস্বার্থ ভালোবাসা ও মমতা দিয়েছেন, এটাই আমার জীবনে পাওয়া সেরা উপহার। আমার ক্যারিয়ারের সবগুলো অর্জনের জন্য সর্বশক্তিমান আল্লাহ ও আমার অসংখ্য ভক্তদের প্রতি জানাই কৃতজ্ঞতা। আমার যেই ভক্তরা আমাকে অভিন্দন জানিয়েছেন তাদের সবার প্রতি রইলো আমার আন্তরিক ভালোবাসা ও শুভেচ্ছা।’