সরকারের পদত্যাগ চাইলেন ফখরুল

সরকারের পদত্যাগ চাইলেন ফখরুল

 গত কয়েকদিনের ঘটনায় সরকার সম্পূর্ণ ব্যর্থ অভিযোগ করে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, শুধু শাজাহান খান নয়, এ ঘটনায় সরকারের পদত্যাগ দাবি করছি।

বৃহস্পতিবার (০২ আগস্ট) বেলা ১১টা রাজধানীর নয়াপল্টন দলীয় কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ দাবি জানান।

মির্জা ফখরুল বলেন, সড়ক দুর্ঘটনা থেকে শুরু করে দেশে একের পর এক অঘটন ঘটে চললেও অনির্বাচিত ও অবৈধ সরকার তা নিয়ন্ত্রণে সম্পূর্ণ ব্যর্থ হয়েছে। তাই জনগণকে এই সরকারের পতন আন্দোলনে যোগ দেওয়ার আহবান জানাচ্ছি। আমরা অবিলম্বে সরকারের পদত্যাগের দাবি করছি।

সম্প্রতি প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানকে নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া বক্তব্যের নিন্দা জানিয়ে তিনি বলেন, ‘এখন আমরাও তো বলতে পারি শেখ হাসিনা দেশে আসার ১৭দিন পরে জিয়াউর রহমানকে হত্যা করা হয়েছিল। জিয়াউর রহমান দেশের কোনো হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত ছিলেন না।’

শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভকে ভিন্নখাতে ফেরানোর জন্যই সরকার প্রধান জিয়াউর রহমানকে নিয়ে এ ধরনের বিভ্রান্তিমূলক কথা বলেছেন বলে অভিযোগ করেন বিএনপি মহাসচিব।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে মির্জা ফখরুল বলেন, কোমলমতি শিক্ষার্থীরা যে দাবিতে রোজপতে নেমে এসেছে তা যৌক্তিক। আমরা তাদের এ দাবিকে সমর্থন জানাই।

সংবাদ সম্মেলনে স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, ভবিষ্যতে যারা দেশ পরিচালনা করবে আমাদের সেই সন্তানেরা গতকাল (বুধবার) যা করেছে, যেভাবে গাড়ি চালকদের লাইসেন্স দেখেছে তাতে আমরা সমর্থন জানাই। আমরা যেটা পারিনি তারা সেটা করে দেখিয়েছে।

এ সময় দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস, নজরুল ইসলাম খান, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, বিএনপি নেতা আতাউর রহমান ঢালী, আবুল কালাম আজাদ, আমান উল্লাহ আমান, আসাদুল করীম শাহীন, রফিক সিকদার, নাজিম উদ্দিন আলম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।