সবুজবাগে ছাত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

সবুজবাগে ছাত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

রাজধানীর সবুজবাগের দক্ষিণগাঁও এলাকার একটি বাসা থেকে রেহেনা খাতুন (২৩) নামে এক ছাত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।


সোমবার (২৮ অক্টোবর) ভোর ৬টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। পরে ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়।

রেহেনা খাতুন সাতক্ষিরা সদর উপজেলার শিয়ালডাঙ্গা গ্রামের মৃত রফিকুল ইসলামের মেয়ে। তিনি দক্ষিণগাঁওয়ের পশ্চিমপাড়ার ১ নম্বর রোডের ৪৪/৭ নম্বর বাসায় ভাড়া থাকতেন।

সবুজবাগ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. মোফাজ্জল হোসেন  জানান, খবর পেয়ে ওই বাসার পঞ্চম তলার ফ্ল্যাটের বাথরুমের শাওয়ারের লোহার পাইপের সঙ্গে ওড়না দিয়ে গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। ওই বাসাতেই তিনি ভাড়া থাকতেন। পরে ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ ঢামেক হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়।

তিনি আরও জানান, রেহেনা উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ে লেখাপড়া করতেন। মাঝেমধ্যে আবার চাকরিও করতেন। তার বাবার মৃত্যুর পর মা জামিলা খাতুন অন্যত্র বিয়ে করে। বর্তমানে নতুন স্বামীর সঙ্গে থাকে তার মা। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, এই সব কারণেই তিনি মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছিলেন। যার ফলে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।

এ ব্যাপারে বিস্তারিত তদন্ত করে দেখা হচ্ছে বলেও জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।