সবচেয়ে উত্তেজনাপূর্ণ সময় হবে সন্ধ্যায়: ভেট্টরি

সবচেয়ে উত্তেজনাপূর্ণ সময় হবে সন্ধ্যায়: ভেট্টরি

বুধবার সকাল থেকেই ইডেন গার্ডেনসে অনুশীলনে ব্যস্ত সময় পাড় করেছে বাংলাদেশ দল। প্রথমবারের মতো গোলাপি বলে খেলতে নামার আগে কলকাতার এই মাঠকে পরখ করে নিয়েছে মুমিনুল হকের দল। এদিন সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেছেন টাইগারদের স্পিন কোচ ড্যানিয়েলে ভেট্টরি।
নিউজিল্যান্ডের সাবেক এই তারকা স্পিনার কয়েকদিন আগেই যোগ দিয়েছেন বাংলাদেশ দলে। শুরুতেই গুরুত্বপূর্ণ অ্যাসাইনমেন্ট নিয়ে ভারত সফরে এসেছেন তিনি। দিবা-রাত্রীর এই টেস্টের উত্তেজনাপূর্ণ সময় কখন জানিয়েছেন ভেট্টরি। 
‘দিনের বেলায় গোলাপি বলের কার্যকারিতা সাধারণ বলের মতোই। সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জটা হচ্ছে যতক্ষণ ফ্লাড লাইটের নিচে খেলা হবে। এখানে দ্রুত সূর্য অস্ত যায়। এরপরই আমরা গোলাপি বলের খেলাটা উপভোগ করতে পারব। আসলে দিন-রাতের টেস্ট নিয়ে আমার অভিজ্ঞতা হচ্ছে টিভির সামনে বসে দেখা। ম্যাচের সবচেয়ে উত্তেজনাপূর্ণ সময়টা হবে সন্ধ্যার পর।’
এই টেস্টে যোগ দিচ্ছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। উপস্থিত থাকবেন দুই দেশের সাবেক ও বর্তমান অনেক ক্রিকেটাররা। 
ভেট্টরি বলেন, ‘সবচেয়ে বড় বিষয়টি হচ্ছে স্টেডিয়ামে অনেক মানুষের সমাগম হচ্ছে। এখানেই বোঝাযায় এই ম্যাচের গুরুত্বটা কতটুকু। দর্শক এখন সময় বাঁচাতে অনেক কৌশলী। আপনি যখন টেস্ট ম্যাচ রাতে নিয়ে আসলেন তখনই এর প্রতি মানুষের আগ্রহ বেড়েছে।’
টাইগার স্কোয়াডে রয়েছেন মুস্তাফিজুর রহমান, আবু জায়েদ রাহী, আল আমিন হোসেন ও এবাদত হোসেন। কিউইদের সাবেক অধিনায়ক জানিয়েছেন, চারজন পেসারই গোলাপি বলে খেলার জন্য মুখিয়ে রয়েছেন। 
‘স্কোয়াডের পেসাররা এই ম্যাচে অংশে নিতে বেশ উচ্ছ্বসিত। এটাই ভালো দিক। সাধারণত বাংলাদেশের পেসারদের টেস্ট ম্যাচের আগে তেমন উত্তেজিত হতে দেখা যায় না। আমার মনে হয় বলটা অতিরিক্ত গ্রিপ করবে। এসজি’র গোলাপি বল খানিকটা ভিন্নও হতে পারে। সবার অভিজ্ঞতা রয়েছে কুকাবুরা’র তৈরি বল দিয়ে। এখানেও বাড়তি আকর্ষণ থাকবে। অনেক দর্শক আর কৌতুহল নিয়ে দারুণ ম্যাচ হবে। দল আমরা হিসেবে আমরা মাঠে নামার জন্য অপেক্ষায় রয়েছি।’
সাধারণত দিন-রাতের ম্যাচে পেসাররাই দাপট দেখিয়েছে। যদিও ভেট্টরি মনে করেন স্পিনাররাও অবদান রাখবেন এই ম্যাচে।
‘গোলাপি বলে যতটুকু দেখিছি স্পিনাররা তেমন সুবিধা পায় না। যদিও টেস্ট ক্রিকেটে স্পিনারদের ভূমিকা অনেক বেশি। তবে এসজি বলে দলের স্পিনাররা বল করতে বেশ স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করছে। আমার মনে হয় স্পিনাররাও সুবিধা পাবে।’
আগামী শুক্রবার বাংলাদেশ সময় দুপুর দেড়টায় প্রথমবারের মতো দিবা-রাত্রীর টেস্টে মাঠে নামছে দল দুটি।