সন্ন্যাসিনী হতে চেয়েছিলেন জ্যাকুলিন ফার্নান্দেজ

সন্ন্যাসিনী হতে চেয়েছিলেন জ্যাকুলিন ফার্নান্দেজ

জ্যাকুলিন ফার্নান্দেজ

বর্তমানে বলিউডের অন্যতম লাস্যময়ী অভিনেত্রী জ্যাকুলিন ফার্নান্দেজ জীবনের শুরুতে নাকি অভিনেত্রী হওয়ার কথা চিন্তাও করেননি। বরং তিনি সন্ন্যাসিনী হতে চেয়েছিলেন। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে এমন চমকপ্রদ কথাই জানিয়েছেন তিনি।


৩৪ বছর বয়সী শ্রীলঙ্কান সুন্দরীকে সন্ন্যাসিনী হিসেবে কথা ভাবা তার ভক্তদের জন্য এখন সত্যিই কঠিন একটা বিষয়। কিন্তু ব্যাপারটা সত্যিও হতে পারতো। 

সম্প্রতি নেহা ধুপিয়ার টক শো’তে এই অভিনেত্রী জানান, তার খুবই ইচ্ছা ছিল সন্ন্যাসিনী হওয়ার। যে জ্যাকুলিনের ক্যারিশমায় হুঁশ হারায় দর্শক-ভক্তরা, সে নাকি কোনও এক সময় গ্ল্যামারের বিপরীতে গিয়ে একেবারে অন্য পথে হাঁটতে চেয়েছিলেন। কিন্তু কেন? আর কেনই বা সেই পথে পা না দিয়ে সম্পূর্ণ বিপরীত দুনিয়ায় পা বাড়ালেন তিনি?

জ্যাকুলিন বলেন, কনভেন্ট স্কুলে পড়াশুনা করেছি। নান-রা আমাদের ক্লাস নিতেন। ওদের লাইফস্টাইল দারুণ লাগতো আমার কাছে। প্রতিদিন চার্চে যেতাম। গান গাইতাম। মনে হতো আমার আর কোথাও যাওয়ার দরকার নেই।

তাহলে হঠাৎ সেই চিন্তা থেকে সরেই বা এলেন কেন? কেন হলেন না সন্ন্যাসিনী? জ্যাকুলিনের সহাস্য উত্তর, ‘তখন থেকেই তো ছেলেদের উপর ক্রাশ জন্মাতে লাগলো। আর আমি বুঝে গেলাম, নান হওয়া আমার কম্ম না।’

২০০৯ সালে ‘আলাদিন’ ছবিতে অভিনয়ের মধ্য দিয়ে বলিউডে পা রাখেন জ্যাকুলিন। এরপর একে একে ‘হাউজফুল’, ‘মার্ডার ২’, ‘রেস ২’ সিনেমা দিয়ে বলিউডে নিজের স্থান পাকা করেছেন তিনি।