সন্দেহভাজন রোগীর দেহে করোনাভাইরাসের অস্তিত্ব পাওয়া যায়নি

সন্দেহভাজন রোগীর দেহে করোনাভাইরাসের অস্তিত্ব পাওয়া যায়নি

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত সন্দেহে রাজধানীর এক হাসপাতালে ভর্তি হওয়া রোগীর দেহে এ ভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া যায়নি। রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর) ল্যাবরেটরিতে এর নমুনা পরীক্ষা করা হয়।

বুধবার (১২ ফেব্রুয়ারি) করোনাভাইরাস পরিস্থিতি নিয়ে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে আইইডিসিআর পরিচালক অধ্যাপক ডা. মীরজাদি সেব্রিনা ফ্লোরা এ তথ্য জানান।
 
তিনি বলেন, 'দেশে এখনো কোন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী পাওয়া যায়নি।'

তিনি জানান, সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে আইসোলেশন ইউনিটে রাখা ১১ জন এবং আশকোনা হজ ক্যাম্পের কোয়ারেন্টাইন কেন্দ্রে উহান ফেরত ৩০১ যাত্রীর সবাই সুস্থ।

এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় সারাদেশে ১৩ হাজার ৫২১ জনের হেলথ স্ক্রিনিং করা হয়েছে। এর মধ্যে আকাশ পথে ৭ হাজার ৭১১ জন, দুটি সমুদ্র বন্দরে ২৪১ জন, ঢাকা ক্যান্টনমেন্ট রেলস্টেশনে ২৩০ ও বিভিন্ন স্থল বন্দরে ৫ হাজার ৫৮০ জনের স্ক্রিনিং হয়।

উল্লেখ্য, গত ১ ফেব্রুয়ারি চীনের উহান প্রদেশ থেকে বাংলাদেশ বিমানের বিশেষ ফ্লাইটে দেশে ফিরেছেন ৩১২ বাংলাদেশি। তবে বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত এ ভাইরাসে কেউ আক্রান্ত না হলেও সিঙ্গাপুরে দুই বাংলাদেশি করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।


এদিকে করোনাভাইরাস সংক্রমণ ঠেকাতে সতর্কতামূলক পদক্ষেপ হিসেবে চীনের নাগরিকদের অন-অ্যারাইভাল ভিসা দেয়া সাময়িক বন্ধ ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ।

গত ৩১ ডিসেম্বর চীনের মধ্যাঞ্চলীয় হুবেই প্রদেশের উহানে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের উপস্থিতি নিশ্চিত করা হয়। এরপর থেকে চীনে মহামারি আকার ধারণ করে এই ভাইরাস। এখন পর্যন্ত অন্তত ১১০৭ জনের প্রাণহানি ঘটেছে। প্রাণঘাতী এই ভাইরাসে ৪৪ হাজারের বেশি মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন।