সংবিধানের ১৬ আনা বাস্তবায়ন চাই: ড. কামাল

সংবিধানের ১৬ আনা বাস্তবায়ন চাই: ড. কামাল

গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন বলেছেন, দেশের মালিক জনগণ। নির্ভেজাল গণতন্ত্র বাস্তবায়ন করে দেশের ক্ষমতা জনগণকে বুঝিয়ে দিতে হবে। স্বাধীনতার ৪৮ বছরে সংবিধানের ১৬ আনা বাস্তবায়নের দাবি জানাচ্ছি।

মঙ্গলবার (২৬ মার্চ) স্বাধীনতা দিবসে সাভার জাতীয় স্মৃতিসৌধে ফুল দিতে এসে ড. কামাল হোসেন এসব কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, দেশে গণতন্ত্র নেই। জনগণের ভোটাধিকার ফিরিয়ে এনে ঘুষ-দুর্নীতিমুক্ত বাংলাদেশ গড়তে হবে। দেশের অর্থনৈতিক অগ্রগতি তরান্বিত করতে হবে। জনগণকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। জনগণকে সংগঠিত হয়ে সব কিছু অর্জন করতে হবে।

গণতন্ত্র সুসংগঠিত করতে ইলেকশন হয়, কিন্তু নির্ভেজাল ইলেকশন পাচ্ছি না বলেও মন্তব্য করেন ড. কামাল।

তিনি আরও বলেন, দেশে জিডিপি প্রবৃদ্ধি ও মাথাপিছু আয়ের সুষম বন্টন করতে হবে।  

এসময় তার সঙ্গে দলীয় নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে জাতির বীর সন্তানদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছেন বিকল্প ধারার মহাসচিব মেজর (অব.) আবদুল মান্নান। শ্রদ্ধা জানানো শেষে উপস্থিত সাংবাদিকদের তিনি বলেন, স্বাধীনতার ৪৮ বছরে দেশ অনেক এগিয়েছে। দেশে এক সময় চাঁদাবাজি হতো, এখন কোথায় কোনো চাঁদাবাজি নেই। গ্রামে কোনো অস্থিরতা নেই।

দেশের বিভিন্ন উন্নয়নের কথা উল্লেখ করে আবদুল মান্নান বলেন, মাথাপিছু আয় এখন ১ হাজার ৯০৯ ডলার, জিডিপি প্রবৃদ্ধি ৮ শতাংশের উপর এটা অনেক বড় অর্জন। এসবের ফলে দেশে দারিদ্র্যের হার কমেছে।

শ্রদ্ধা জানানো শেষে ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন বলেন, স্বাধীনতার ৪৮ বছরেও ধর্মের অপব্যবহার চলছে। উন্নত বাংলাদেশ গড়তে ধর্মের অপব্যবহার বন্ধ করতে হবে।