শ্রীপুরে রাস্তায় গৃহবধূর ওপর প্রকাশ্য নির্যাতনের দৃশ্য ফেসবুকে ভাইরাল

শ্রীপুরে রাস্তায় গৃহবধূর ওপর প্রকাশ্য নির্যাতনের দৃশ্য ফেসবুকে ভাইরাল

শ্রীপুর (প্রতিনিধি) গাজীপুর : প্রকাশ্য জনাকীর্ণ সড়কে মধ্যবয়সী এক গৃহবধূর উপর তার পাষন্ড স্বামী নির্যাতন করছে। যন্ত্রণায় চিৎকার করছেন ওই গৃহবধূ আর পাশে দাঁড়িয়ে ঘটনাটি দেখছিল হাজারো মানুষ। কিন্তু গৃহবধূকে রক্ষার জন্য কেউ এগিয়ে যায়নি। বরং কেউ কেউ ওই নির্যাতনের দৃশ্য মুঠোফোনে ধারণ করেছে। আর তা কিছুক্ষণের মধ্যেই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে ভাইরাল হয়ে যায়। এমন মধ্যযুগীয় নির্যাতনের ঘটনাটি ঘটে গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার তেলিহাটি ইউনিয়নের এমসি বাজার এলাকায় শনিবার বিকেলে। খবর পেয়ে পুলিশ ওই গৃহবধূকে উদ্ধার করে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছে, নির্যাতনের একপর্যায়ে ওই গৃহবধূ চিৎকার করে লুটিয়ে পড়লে তাকে অন্তত ১৫ থেকে ২০ গজ দূরে টেনেহেঁচড়ে নেয়া হয়। পরে তার স্বামী একটি রিকশার নিচে উপুড় করে শুইয়ে জোরপূর্বক নিয়ে যায় তাকে। ওই সময় চিৎকার করায় বার বারই তার মুখে জুতা দিয়ে সজোরে আঘাত করেন পাষন্ড স্বামী।ঘটনা জেনে নির্যাতিত ওই গৃহবধূর সাথে যোগাযোগ করলে স্বামীর বিচার দাবি করেন তিনি। নির্যাতন করা ওই ব্যক্তির নাম মো: ইব্রাহীম (৩৮)। তিনি পাশের গোদারচালা গ্রামের ফজলুল হকের ছেলে। ওই গৃহবধূ তার দ্বিতীয় স্ত্রী।

ওই গৃহবধূ জানান, প্রায় সাত বছর আগে তার প্রথম স্বামী মারা গেছেন। তার প্রথম স্বামীর তিন সন্তান রয়েছে। স্বামী মারা যাওয়ার প্রায় ছয় মাস পর ইব্রাহীমের সঙ্গে তার পরিচয় হয়। প্রথম স্বামীর রেখে যাওয়া বাড়িসহ কোটি টাকার সম্পদের লোভে ফুসলে পরিচয়ের কয়েক মাস পরই তাকে বিয়ে করেন ইব্রাহীম। গৃহবধূ অভিযোগ করেন, বিভিন্ন সময় নানা অজুহাতে তার কাছ থেকে কয়েক লাখ টাকা নিয়েছেন ইব্রাহীম। টাকা না দিলে তাকে মারধর করতেন তিনি। প্রায় বছরখানেক ধরে তার প্রথম স্বামীর বাড়ি বিক্রি করে টাকা দেয়ার জন্য চাপ দেন ইব্রাহীম। এতে রাজি না হওয়ায় নির্যাতনের মাত্রা আরও বাড়ে। এরই মধ্যে কয়েক মাস আগে ইব্রাহীম আরও একটি বিয়ে করেন। প্রথম স্ত্রীর সাথে ওই স্ত্রী নিয়ে পাশের তেলিহাটী মাজম আলী মোড় এলাকায় থাকেন ইব্রাহীম।

প্রত্যক্ষদর্শী তরুণ ব্যবসায়ী আল আমিন জানান, জনাকীর্ণ সড়কে গৃহবধূর উপর প্রকাশ্য নির্যাতন চললেও তাকে রক্ষার জন্য এগিয়ে যায়নি কেউ। বরং অনেকেই মুঠোফোনে তা ধারণ করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে দিয়েছে।শ্রীপুর থানার উপপরিদর্শক সৈয়দ আজিজুল হক বলেন, ঘটনার পর থেকে মো: ইব্রাহীম পলাতক রয়েছেন। তাকে গ্রেফতারের জন্য অভিযান চলছে। শ্রীপুর থানার ওসি আসাদুজ্জামান বলেন, নির্যাতনের ঘটনা জেনে পুলিশ ওই গৃহবধূকে উদ্ধার করে।