শ্রীপুরে পুলিশের সঙ্গে ‘গোলাগুলি’, ১৬ মামলার আসামি নিহত

শ্রীপুরে পুলিশের সঙ্গে ‘গোলাগুলি’, ১৬ মামলার আসামি নিহত

গাজীপুরের শ্রীপুরে পুলিশের সঙ্গে সন্দেহভাজন ডাকতদের গোলাগুলিতে একজন নিহত হয়েছে, যার বিরুদ্ধে ১৬টি মামলা রয়েছে থানায়। মঙ্গলবার রাত সোয়া ৩টার দিকে শ্রীপুরের গোসিংগা ইউনিয়নের পটকার ভূইয়ার ভিটা এলাকায় গোলাগুলির ওই ঘটনা ঘটে বলে শ্রীপুর থানার এএসআই মো. জয়নাল আবেদীনের ভাষ্য।

নিহত আব্দুর রউফ হাওলাদার (৩৮) শরিয়তপুরের গোসাইরহাট থানার শিবপুর এলাকার আব্দুর রাজ্জাক হাওলাদারের ছেলে। এএসআই জয়নাল বলেন, “একদল ডাকাত গভীর রাতে পটকার ভূইয়ার ভিটা এলাকায় ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছিল। এ সময় শ্রীপুর থানার টহল পুলিশের একটি গাড়ি ওই এলাকা পার হওয়ার সময় ডাকাতরা তাদের দিকে গুলি ছোড়ে। পুলিশ পাল্টা গুলি করলে এক ডাকাত গুলিবিদ্ধ হয়, অন্যরা পালিয়ে যায়।”

পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে গুলিবিদ্ধ ওই ব্যক্তিকে শ্রীপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। পরে ময়নাতদন্তের জন্য লাশ পাঠানো হয় শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে।

পুলিশ পরে তার নাম ঠিকানা জানতে পারে জানিয়ে এএসআই জয়নাল বলেন, “রউফের বিরুদ্ধে নয়টি ডাকতির মামলাসহ বিভিন্ন অভিযোগে মোট ১৬টি মামলা রয়েছে।” শ্রীপুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে একটি পাইপগান, দুটি চায়নিজ কুড়াল, তিনটা দা উদ্ধারের কথা জানিয়েছে।

ওই থানার এসআই শহীদুল ইসলাম, কনস্টেবল মোস্তাফিজ ও সুভাষ নামের এক আনসার সদস্যকে শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। হাসপাতালের চিকিৎসক সালমা নূর জানান, নিহত রউফের বুকের বাঁ দিকে গুলির তিনটি ক্ষত ছিল। তবে পুলিশ সদস্যদের কেউ গুলিতে আহত নন।