শেখ হাসিনা ক্ষমতার জন্য রাজনীতি করেন না সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের

শেখ হাসিনা ক্ষমতার জন্য রাজনীতি করেন না সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের

সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধি: আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতার জন্য রাজনীতি করেন না। তিনি দলের নেতাকর্মীদের পকেট ভারীর রাজনীতিও করে না। তিনি রাজনীতি করেন দেশের জনগণের ও তাদের ভাগ্য উন্নয়নের। শেখ হাসিনা গরীবের সরকার উল্লেখ করে তিনি বলেন, বিএনপি গরীবের  জন্য নয়, বিএনপি মানে দেশে দুর্নীতি, সন্ত্রাস, খুন, নারী ধর্ষণ আর অস্বস্তিকর পরিস্থিতি।গতকাল শনিবার দুপুরে শহরের বিমানবন্দর সড়কের রেলওয়ে অফিসার্স কলোনী ফাইভ স্টার মাঠে আওয়ামী লীগের শীতবস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সেতু মন্ত্রী একথাগুলো বলেন।
ওবায়দুল কাদের তাঁর বক্তব্যে বলেন, বতর্মান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বলেছেন,  চলতি শীত মৌসুমে উত্তরাঞ্চলে তীব্র শীত পড়েছে। তাই শীতে শীতবস্ত্রের অভাবে উত্তরাঞ্চলের একজন শীতার্ত মানুষও  যাতে কষ্ট না পায়, একজন মানুষেরও যেন মৃত্যু না হয়। তাই আমরা প্রধানমন্ত্রীর নিদের্শের আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ আজ আপনাদের মাঝে শীতবস্ত্র নিয়ে বিতরণের জন্য এসেছি।ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপি ক্ষমতার রাজনীতি করে, তারা জনগণের রাজনীিিত করে না । তাই তারা আজ শীতার্তদের পাশে নেই। বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ঢাকা বসে টেলিভিশনে শুধু নালিশ করেন। শেখ হাসিনার সরকারের আমলে প্রতিটি নির্বাচন নিরপেক্ষ হয়েছে দাবি করে সেতু মন্ত্রী আরো বলেন, বিএনপি নির্বাচনের আগেই হেরে যায়। তারা নির্বাচনের অনুষ্ঠিত হওয়ার আগেই কারচুপিসহ নানা রকম অভিযোগ তোলেন। ইভিএম হচ্ছে ডিজিটাল এবং বিশ্ব স্বীকৃত ও আধুনিক পদ্ধতি। এ পদ্ধতির সাহায্যে অল্প সময়ে ভোট প্রদান এবং গণনা করা যায়। আর বর্তমান যুগ হচ্ছে ডিজিটালের যুগ। অথচ বিএনপি সিটি নির্বাচনে ইভিএমের ব্যবহার চাই না। তারা ডিজিটাল বাংলদেশ চাই না। তারা চাই এনালগ বাংলাদেশ ।

আওয়ামী লীগের রংপুর বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক  বি এম মোজাম্মেল হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন দুর্যোগ, ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. মো. এনামুল রহমান।  অনুষ্ঠানে বাণিজ্য মন্ত্রী টিপু মুন্সি, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব আ.ফ. ম বাহাউদ্দিন নাছিম ও ত্রাণ সমাজ কল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী প্রমূখ বক্তব্য রাখেন।এতে নারী সংসদ সদস্য রাবেয়া আলীম, আওয়ামী লীগ নেত্রী এড. হোসনে আরা লুৎফা ডালিয়া ছাড়াও আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ, নীলফামারী জেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দসহ রংপুর বিভাগের আটটি জেলার বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন। শীতবস্ত্র অনুষ্ঠানে তিন হাজার শীতার্ত মানুষের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়। এছাড়াও  নীলফামারীসহ রংপুর বিভাগের আটটি জেলায় ৫০ হাজার শীতবস্ত্র বিতরণ করা হবে বলে সংশ্লিষ্ট সুত্রে জানা গেছে।