শুধু ছুঁয়ে দেখতে ব্যাংক থেকে ৬৯ কোটি টাকা তুললেন ধনকুবের

শুধু ছুঁয়ে দেখতে ব্যাংক থেকে ৬৯ কোটি টাকা তুললেন ধনকুবের

টাকার গন্ধ আর স্পর্শ কার না ভালো লাগে। আর টাকা যদি কাড়ি কাড়ি-প্রায় ৬৯ কোটি ২৩ লাখ টাকা তাহলে তো আর কথাই নেই। তবে নাইজেরিয়ার এক ধনকুবের যা করে দেখালেন তা শুনে একটু অবাক হতেই হবে। আমার টাকা! সত্যিই আমার টাকাতো?-এই ধন্দ নিয়েই একদিন ব্যাংকে গিয়ে নিজের প্রায় ৬৯ কোটি ২৩ লাখ টাকা ব্যাংক থেকে তুলে নিয়ে বাড়ি চলে এসেছিলেন তিনি। শুধু এটুকু নিজেকে বিশ্বাস করানোর জন্য যে-ওগুলো কাগজে লেখা সংখ্যা নয় মাত্র, আসলে টাকাই।

নাইজেরিয়ার শিল্পপতি আলিকো ডাঙ্গোটে বর্তমানে আফ্রিকার সবচেয়ে ধনী ব্যক্তি। শনিবার আইভরি উপকূলে অনুষ্ঠিত একটি সাক্ষাৎকার অনুষ্ঠানে নিজের এমনই গল্প শোনালেন আলিকো। সেদিন ব্যাংক থেকে তুলে আনা টাকাগুলো বারবার করে ছুঁয়ে দেখেছেন। বিশ্বাস করার চেষ্টা করেছেন, এগুলো তারই। পরের দিন ভোর হতেই আবার ব্যাংকে গিয়ে জমা করে এসেছিলেন। সিমেন্ট থেকে ময়দা-অনেক কিছুই তৈরি হয় আলিকোর কারখানায়। তিনি বলেন, ‘তরুণ বয়সে কোটির অঙ্কগুলো খুব জরুরি মনে হয়। তারপরে সংখ্যার মানেটা ক্রমশ কমতে থাকে।’


আর তিনদিন পরে ৬২-তে পা দেবেন এই ধনকুবের। আলিকো মনে করেন, আফ্রিকার সবচেয়ে উন্নত দু’টি ক্ষেত্র হলো চাষাবাদ ও প্রযুক্তি।

আফ্রিকার তরুণ উদ্যোক্তাদের উদ্দেশে আলিকোর বার্তা-‘হঠাৎ আসা সাফল্যের প্লাবনে ভেসে যাবেন না। উত্থান-পতন আসবেই। তার মধ্যেও স্থির থাকতে হবে।