শীর্ষে থাকা লিভারপুলের জয়রথ থামিয়ে দিল ম্যানইউ

শীর্ষে থাকা লিভারপুলের জয়রথ থামিয়ে দিল ম্যানইউ

পাগলা ঘোড়ার মতই ছুটছিল তাদের জয়রথ। পরাজয় তো দুরে থাক, কেউ ড্র’টি পর্যন্ত করতে পারছিল না লিভারপুলের সঙ্গে। টানা ৮ ম্যাচ জয়ের লাগাম ছুটিয়ে দেয়ার পর অবশেষে একটি ড্র’য়ের স্বাদ পেলো অল রেডরা।

ঘরের মাঠে ৯ম ম্যাচে লিভারপুলের পয়েন্ট ভাগাভাগিতে বাধ্য করলো ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। রোববার রাতে ম্যানইউ-লিভারপুল ম্যাচ শেষ হয়েছে ১-১ গোলে অমিমাংসিতভাবে।

ম্যাচটি জিততেই যাচ্ছিল ম্যানইউ। শেষ মুহূর্তে গোল হজম করে জয় বঞ্চিত হয় তারা। প্রথমার্ধে (৩৬ মিনিটে) মার্কাস রাশফোর্ডের গোলে এগিয়ে যায় ম্যানচেস্টার। দ্বিতীয়ার্ধে অ্যাডাম লালানার গোলে ম্যাচে সমতা ফেরায় লিভারপুল।

কোনও রকমে হার বাঁচালেও লিভারপুল এবারের প্রিমিয়র লিগে এই প্রথমবার কোনও ম্যাচ জিততে ব্যর্থ হলো। ম্যাচ থেকে পুরো পয়েন্ট তুললে না পারলেও ইয়ুর্গেন ক্লপের শিষ্যরা যথারীতি লিগ টেবিলের শীর্ষস্থান ধরে রেখেছে। ৯ ম্যাচ শেষে তাদের পয়েন্ট ২৫।

Liverpool

সমান সংখ্যক ম্যাচে ১৯ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ম্যানচেস্টার সিটি। ৯ ম্যাচে ১০ পয়েন্ট নিয়ে ম্যানইউ রয়েছে ১৩ নম্বরে।

ম্যাচের ৩৬ মিনিটের মাথায় জেমসের ক্রস থেকে থ্রু বলে পা ঠেকিয়ে লিভারপুলের জালে জড়িয়ে দেন রাশফোর্ড। যদিও গোল নিয়ে তীব্র আপত্তি তোলে লিভারপুলের খেলোয়াড়রা। তাদের দাবি রাশফোর্ড বল ধরার আগেই ডিভোক অরিজিকে ফাউল করেছিলেন ভিক্টর লিন্ডেলফ। রেফারি অবশ্য ভিএআরের সাহায্য নিয়ে যাচাই করে নেন লিভারপুলের দাবি যথার্থ কি না। শেষমেশ গোলের সিদ্ধান্তেই অনড় থাকেন তিনি।

ম্যাচের প্রথমার্ধেই প্রায় গোল পরিশোধ করে ফেলেছিল লিভারপুল। তবে ইউনাইটেডের আপত্তিতে রেফারি ভিএআরের সাহায্যে বাতিল করে সাদিও মানের সেই গোলটি। বল নিয়ন্ত্রণে নেয়ার সময় হাত লাগিয়ে বসেছিলেন মানে।

প্রাথমিকভাবে তা রেফারির নজর এড়ালেও ম্যানইউ গোলরক্ষর ডি গিয়া এই বিষয়ে নজর কাড়েন রেফারির। ফলে ভিএআর দেখে গোল বাতিল হয়ে যায়। সে যাত্রায় লিড ধরে রাখে ইউনাইটেড। শেষমেশ ৮৫ মিনিটে রবার্টসনের পাস থেকে গোল করে লিভারপুলের হার বাঁচান লালানা।