শাস্তিটা বেশি হয়েছে, আপিল করব: শাহাদাৎ

শাস্তিটা বেশি হয়েছে, আপিল করব: শাহাদাৎ

সতীর্থকে পেটানোর দায়ে ক্রিকেট থেকে পাঁচ বছরের নিষেধাজ্ঞা পেয়েছেন জাতীয় দলের সাবেক পেসার শাহাদাৎ হোসেন। গত পরশু রোববার খুলনায় ঢাকা বিভাগের হয়ে খুলনা বিভাগের বিপক্ষে খেলছিলেন শাহাদাৎ হোসেন রাজীব।
ম্যাচের এক পর্যায়ে সতীর্থ আরাফাত সানী জুনিয়রকে বল উজ্জ্বল করে দিতে বলেন শাহাদাৎ। তাতেই বাঁধে গণ্ডগোল।
‘মাথা সবারই গরম থাকে। আমিও মানুষ। আমি মারামারি করি নাই। ধাক্কা দিয়ে সরিয়ে দিয়েছিলাম। আমি তো ফিক্সিং করি নাই, বড় ভাই হিসেবে শাসন করেছি শুধু।’ সন্ধ্যায়  এভাবেই বলেন শাহাদাৎ হোসেন।
শাহাদাতের কথা মতে, আরাফাত বলের শাইন করতে অপারগতা জানায়। তখন মোহাম্মদ শহীদই প্রথমে এসে আরাফাতকে ধমক দেয়। এরপর আমি ধাক্কা দিয়ে সরিয়ে দেই। এটাই আমার অপরাধ।
আজ মঙ্গলবার বিসিবির টেকনিক্যাল কমিটির বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয় শাহাদাতের শাস্তির ব্যপারে। সিদ্ধান্ত শেষে কমিটির প্রধান মিনহাজুল আবেদীন জানান, পাঁচ বছরের নিষেধাজ্ঞা ও তিন লাখ টাকা জরিমানার কথা।
‘ওর ব্যাপারে আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি। ৫ বছরের নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে, এর মধ্যে ২ বছরের স্থগিত নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে। ওর যদি আপিল করার ইচ্ছা থাকে, তাহলে সে ২৬ তারিখের মধ্যে করতে পারবে। রিপোর্টে এসেছে, ও লেভেল ৪ অপরাধ করেছে। তারপর টেকনিক্যাল কমিটি সেই অনুযায়ী সিদ্ধান্ত নিয়েছে।’
বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের দেয়া এই শাস্তির পর শাহাদাতের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়। জানতে চাওয়া হয়, শাস্তির মেয়াদ বেশি হয়ে গেল কী না। এমনটা শুনে উল্টো শাহাদাতই প্রশ্ন করেন, আপনিই বলেন আমার শাস্তিটা ঠিক আছে?
তবে শাহাদাৎ আস্থা রাখছেন বিসিবির উপর। আশা করছেন, শাস্তিটা কমিয়ে দিবে দেশের ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা।
‘বিসিবি আছে দেখেই আমরা আছি। আমি একজন ক্রিকেটার। এটাই আমার রুটি-রুজির পথ। আমি আশা করি আপিল করার পর বিসিবি আমার শাস্তিটা কমিয়ে দিবে।’
শাহাদাতের আশা, আপিল করার পর শাস্তির মেয়াদ পাঁচ বছর থেকে কমে ছয় মাসে নামবে।
‘শাস্তি মেয়াদটা আমার জন্য অনেক বেশি হয়ে গেছে। আমি কাল (বুধবার) ঢাকা আসছি। এসে বিসিবিতে যাব। আমি অনুরোধ করব আমার পরিবারের কথা বিবেচনা করে শাস্তির মেয়াদটা যেন কমিয়ে দেয়।’
শাস্তির মেয়াদ যদি না কমে তখন করণীয় কি থাকবে আপনার? এ নিয়ে কিছু ভেবেছেন?
‘দেখেন, আমি ক্রিকেট খেলতে চাই। ক্রিকেটটাই আমার সব। আমার ভবিষ্যৎ পরিকল্পনাও ক্রিকেটকে নিয়েই। সামান্য অপরাধের জন্য আমাকে এমন শাস্তি দিয়েছে যেটা অনেক বেশি হয়ে গেছে।’
ঢাকা এসে আরাফাত সানী জুনিয়রকে নিয়েই বিসিবিতে যাবেন বলেও জানান ৩৩ বছর বয়সী এই পেসার।