শাজাহানপুরে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় স্বামী-স্ত্রীসহ নিহত ৫ : আহত ২০

শাজাহানপুরে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় স্বামী-স্ত্রীসহ নিহত ৫ : আহত ২০

শাজাহানপুর (বগুড়া) প্রতিনিধি : শাজাহানপুরে ঈদের দিন ও গতকাল পৃথক তিনটি সড়ক দুর্ঘটনায় পাঁচজন মারা গেছে।এর মধ্যে গতকাল শাজাহানপুরে যাত্রীবাহী দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে স্বামী-স্ত্রীসহ ৩ ব্যক্তি নিহত এবং অন্তত: ২০ জন আহত হয়েছেন। গতকাল বুধবার বেলা পৌঁনে ২টার দিকে ঢাকা-শাজাহানপুর উপজেলার আড়িয়া বাজার এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।শাজাহানপুর থানার এসআই সুশান্ত কুমার সাহা জানিয়েছেন, ঢাকা থেকে বগুড়াগামী শ্যামলী পরিবহনের  যাত্রীবাহী কোচ (ঢাকা মেট্রো ব ১৪-৪০৪৫)এর সাথে ঢাকাগামী আহাদ পরিবহনের যাত্রীবাহী কোচের (ঢাকা মেট্রো ব ১৩-০৪০৭) মুখোমুখি সংঘর্ষ ঘটে। এতে স্বামী-স্ত্রীসহ তিনজন নিহত এবং অন্তত: ২০ জন আহত হয়েছেন। সংবাদ পেয়ে শাজাহানপুর থানা পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা আহতদের উদ্ধার করে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায় ।

 সেনাবাহিনীর একটি গাড়ী ওই পথ দিয়ে যাওয়ার সময় গাড়িটি দাঁড়িয়ে সেনা সদস্যগণও উদ্ধার কাজে সহায়তা করেন। অপরদিকে আহতদের হাসপাতালের নেয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক তিনজনকে মৃত ঘোষনা করেন। নিহতদের মধ্যে দু’জন রংপুর সদর উপজেলার কামার হাছনা গ্রামের খায়রুল ও তার স্ত্রী রানু বেগম (৪৫)। অপর জন শ্যামলী পরিবহণের চালক বলে জানা গেলেও এর ব্যাপারে বিস্তারিত জানা যায়নি। বেলা ৩ টার দিকে বগুড়া শজিমেক পুলিশ ফাঁড়ির এসআই আব্দুল আজিজ মন্ডল জানান, হাসপাতালে নিয়ে আসা হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক ৩ জনকে মৃত ঘোষনা করেন। আরো ২০ জন আহত হয়েছে এ ঘটনায়। তারা চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

অপর দিকে ঈদ-উল-আযহা’র দিন গত সোমবার বগুড়ার শাজাহানপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় দুই জন নিহত হয়েছেন। নিহতরা হলেন বগুড়া সদর উপজেলার ঠনঠনিয়া এলাকার হাবিবুর রহমানের পুত্র সাব্বির হোসেন শাওন (২১) ও  শাজাহানপুর উপজেলার  জামালপুর গ্রামের আবু জাফরের পুত্র মানিক (৩০)।শাজাহানপুর থানা সূত্রে জানাগেছে, রোববার দিবাগত রাত পৌঁনে ২টার দিকে একটি মোটর সাইকেলে চেপে নিহত সাব্বির হোসেন শাওনসহ ৩জন বগুড়ার শেরপুর থেকে বগুড়া শহরের দিকে যাচ্ছিল। মোটর সাইকেলটি বেপরোয়া গতিতে চলার কারণে শাজাহানপুর উপজেলার নয়মাইল এলাকায় হঠাৎ করেই মোটর সাইকেল থেকে  ছিটকে পড়ে শাওন। এ সময় ঢাকা থেকে বগুড়াগামী একটি যাত্রীবাহী বাস তাকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। খবর পেয়ে ঈদের দিন ভোরে শাজাহানপুর থানা পুলিশ শাওনের লাশ উদ্ধার করে। অপরদিকে, ঈদের নামায শেষে রাস্তা পারাপারের সময় ঢাকা-বগুড়ার মহাসড়কের নয়মাইল এলাকায় মানিক নামের এক ভ্যানচালক অজ্ঞাত যানবাহনের ধাক্কায় নিহত হয়েছে বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন।