লেবাননে ভয়াবহ দাবানল, নেভাতে সাহায্যের আবেদন

লেবাননে ভয়াবহ দাবানল, নেভাতে সাহায্যের আবেদন

লেবাননের পশ্চিমাঞ্চলের শতাধিক বনে দাবানল ছড়িয়ে পড়েছে। আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে ব্যর্থ হয়ে বিশ্ববাসীর কাছে সাহায্য চেয়েছে দেশটি।


বৃহস্পতিবার (১৭ অক্টোবর) এ তথ্য জানিয়েছে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম।

খবরে বলা হয়,  সোমবার (১৪ অক্টোবর) থেকে দাবানল ছড়িয়ে পড়তে শুরু করে। ধারণা করা হচ্ছে, লেবাননে এক যুগের ইতিহাসে এ দাবানল সবচেয়ে ভয়াবহ। আর বাতাস ও তাপদাহের কারণে আগুন ছড়িয়ে পড়ছে দ্রুত।

স্থানীয় একটি সংবাদমাধ্যমের বরাত দিয়ে খবরে বলা হয়, তীব্র কালো ধোঁয়ায় ঢেকে গেছে বৈরুত ও সিডন শহরের আকাশ। এতে একজন স্বেচ্ছাসেবী দমকলকর্মী নিহত হয়েছেন।

পুড়ে ছাই হয়ে গেছে বহু বন। ছবি: সংগৃহীত
অপরদিকে সিরিয়ার রাষ্ট্রীয় বার্তাসংস্থা সানা নিউজ এজেন্সি জানায়, লেবাননের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চল লাতাকিয়ায় দু’জন বন কর্মকর্তা নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও আটজন।

লেবাননের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রায়া এল হাসান জানান, দাবানল নেভাতে দেশটির সরকার একাধিক দেশের কাছে সাহায্য চেয়েছে। আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে কাজ করে যাচ্ছে লেবাননের দমকল ও সেনাবাহিনী।

মঙ্গলবার (১৫ অক্টোবর) দাবানল ছড়িয়ে পড়লে আগুন নেভানোর সরঞ্জামসহ জলকামান নিয়ে লেবাননের পার্বত্য অঞ্চলে যায় দাঙ্গা পুলিশ।

খবরে বলা হয়, আগুনের সূত্রপাত সম্পর্কে এখনো সঠিকভাবে কোনো তথ্য জানা যায়নি।

এদিকে দেশটির প্রধানমন্ত্রী সাদ হারিরি এক বিবৃতিতে বলেন, এ আগুন ইচ্ছে করে লাগানো হয়েছে এমন প্রমাণ পাওয়া গেলে ‘কঠিন মূল্য দিতে হবে’ অপরাধীদের।

লেবাননের বিমান ও সেনাবাহিনী আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করে যাচ্ছে। একইসঙ্গে টুইটারে দাবানলের বিষয়ে নিয়মিত আপডেট দিচ্ছে দেশটির সিভিল ডিফেন্স অথরিটি।