লর্ডসে একি বিস্ময় জন্ম দিচ্ছে আয়ারল্যান্ড!

লর্ডসে একি বিস্ময় জন্ম দিচ্ছে আয়ারল্যান্ড!

বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ইংল্যান্ড। মাত্র এক সপ্তাহ আগে বিশ্বচ্যাম্পিয়নশিপের মুকুট পরেছে তারা। এখনও শরীর থেকে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হওয়া উদযাপন করতে গিয়ে যে ঘাম হয়েছিল তার গন্ধও মুচে যায়নি। তার আগেই আবার মাঠে নামতে হয়েছে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ইংল্যান্ডকে।

ক্রিকেটের তীর্থভূমি লর্ডসেই আজ একমাত্র ম্যাচের টেস্ট সিরিজে আয়ারল্যান্ডের মুখোমুখি হয়েছে স্বাগতিক ইংল্যান্ড। বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হওয়ার কারণে তাদের মধ্যে যে উৎসাহ-উদ্দীপনা কাজ করছে, তাতেই তো উড়ে যাওয়ার কথা মাত্র তৃতীয় টেস্ট খেলতে নামা আয়ারল্যান্ড!


কিন্তু লর্ডসে একি আশ্চর্য, একি বিস্মকর ঘটনারই না জন্ম দিচ্ছে আয়ারল্যান্ড! টস জিতে ব্যাট করতে নামা স্বাগতিক ইংল্যান্ডের স্কোরবোর্ডে ৪৩ রান যোগ হতে না হতেই ৭ উইকেটের পতন ঘটিয়ে দিয়েছে আইরিশরা।

বিশেষ করে ডানহাতি ফাস্ট মিডিয়াম টিম মুরতাগ যেন কচুটাকা করছেন ইংলিশ ব্যাটসম্যানদের। ৯ ওভারে ১৩ রান দিয়ে একাই ৫ উইকেট তুলে নিয়েছেন তিনি। এছাড়া মার্ক অ্যাডেয়ার যোগ দিয়েছেন মুরতাগের সঙ্গে। ৭ ওভারে ২৮ রান দিয়ে তিনি নেন ২ উইকেট।

বিশ্বকাপ জয়ী দলের অবশ্য সবাই নেই ইংল্যান্ডে টেস্ট দলে। এছাড়া আর কয়েকদিন পরই শুরু হবে অ্যাশেজ সিরিজ। এ কারণে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে চারদিনের টেস্টে অধিকাংশ খেলোয়াড়কেই বিশ্রাম দেয়া হয়েছে। তবুও বিশ্বকাপজয়ী দলের জো রুট (অধিনায়ক), জেসন রয়, জনি বেয়ারেস্ট, মঈন আলি এবং ক্রিস ওকস রয়েছেন এই দলে।

কিন্তু টস জিতে ব্যাট করতে নামার পরই টিম মুরতাগের তোপের মুখে পড়েন ইংলিশ ওপেনাররা। ররি বার্নস ৬ রানে এবং জেসন রয়কে ৫ রানে ফিরিয়ে দেন মুরতাগ। জো ড্যানলি করেন সর্বোচ্চ ২৩ রান। জো রুট এসে ফিরে গেছেন মাত্র ২ রান করে। জনি বেয়ারেস্ট তো রানের খাতাই খুলতে পারেননি।

একই অবস্থা হয়েছে মঈন আলি এবং ক্রিস ওকসেরও। এ রিপোর্ট লেখার সময় ইংল্যান্ডের লজ্জা বাঁচানোর চেষ্টা করছেন স্যাম কুরান এবং স্টুয়ার্ট ব্রড। কুরান ১২ এবং ৩ রানে রয়েছেন স্টুয়ার্ড ব্রড। ইংল্যান্ডের রান ১৮ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ৫৮।