রাজশাহীতে স্ত্রীকে হত্যার পর থানায় স্বামীর আত্মসমর্পণ

রাজশাহীতে স্ত্রীকে হত্যার পর থানায় স্বামীর আত্মসমর্পণ

রাজশাহী প্রতিনিধি: রাজশাহীর পবা উপজেলার কলার টিকর গ্রামে স্ত্রীকে হত্যার পর পুলিশের কাছে আত্মসমর্পণ করেছে রিন্টু আহমেদ ওরফে শরিফুল নামে এক ব্যক্তি। স্ত্রীর পরকিয়ার জের ধরে রেন্টু বৃহস্পতিবার ভোর আড়াইটার দিকে এই হত্যাকান্ড ঘটিয়েছেন বলে পুলিশ জানিয়েছে। এ ঘটনায় দামকুড়া থানায় মামলা হয়েছে। দামকুড়া থানা অফিসার ইনচার্জ মাজহারুল ইসলাম জানান, প্রথমে ঘুমন্ত স্ত্রীর মাথায় আঘাত, পরে গলা ও পায়ের রগ কেটে স্ত্রী লাভলী বেগমের মৃত্যু নিশ্চিত করেছেন শরিফুল। পরে রাত সাড়ে তিনটার দিকে বাড়ি থেকে প্রায় ছয় কিলোমিটার দূরে পবার দামকুড়া থানায় গিয়ে হাজির হন।

 এরপর তিনি পুলিশকে বলেন, তিনি তার স্ত্রী লাভলী বেগমকে (২৮) হত্যা করে এসেছেন। পুলিশ তখন তাকে আটক করে। এরপর রাতেই তার বাড়ি যায় পুলিশ। রেন্টুর অভিযোগ, তার স্ত্রী পরকীয়া প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়েছিলেন। তাই তাকে হত্যা করেছেন। রেন্টু একজন নির্মাণ শ্রমিক। তার দুটি সন্তানও রয়েছে। কয়েক বছর আগে একই উপজেলার সাইরপুকুর গ্রামের বাবলু মিয়ার মেয়ে লাভলীর সঙ্গে তার বিয়ে হয়েছিল। নিহত লাভলীর লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজের মর্গে পাঠানো হয়েছে।