রংপুরে জাপার দূর্গেই রওশনকে চেয়ারম্যান মানেন না নেতাকর্মীরা

রংপুরে জাপার দূর্গেই রওশনকে চেয়ারম্যান মানেন না নেতাকর্মীরা

রংপুর জেলা প্রতিনিধি :  রংপুরে জাপার দূর্গেই রওশনকে চেয়ারম্যান হিসেবে মানেন না জাতীয় পার্টির নেতাকর্মীরা। সদ্য প্রয়াত চেয়ারম্যান এরশাদের ছোট ভাই জিএম কাদেরই হলো পার্টির চেয়ারম্যান। তাকে অবমাননা করার ক্ষমতা কারো নেই বলছেন তারা। সেই সাথে গুটি কয়েক সুবিধাবাদী নেতা দলে ভাঙ্গনের চেষ্টা চালাচ্ছে বলে অভিযোগ করেন  জাপার নেতাকর্মীরা। গত বৃহস্পতিবার দুপুরে রওশন এরশাদ সংবাদ সম্মেলন করে নিজেকে দলের চেয়ারম্যান হিসেবে ঘোষনা দিলে রংপুরের নেতাকর্মীরা বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠেন। জাতীয় পার্টির সদ্য প্রয়াত চেয়ারম্যান এরশাদের আদেশ অমান্য করে দলকে ভাঙ্গার চেষ্টার তীব্র প্রতিবাদ জানান রংপুর বিভাগের ৮ জেলা, মহানগর, পৌরসভা ও উপজেলার নেতৃবৃন্দরা। জাতীয় পার্টিকে ধ্বংসের জন্য গভীর এবং পরিকল্পিত ষড়যন্ত্র চলছে বলেন নেতাকর্মীরা। রংপুর জেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক শিল্পপতি ফখর-উজ-জামান জাহাঙ্গীর বলেন, রওশন এরশাদের সাথে গুটি কয়েক সুবিধাবাদী নেতা ছাড়া দলের ত্যাগী নেতাকর্মীরা নেই। জিএম কাদের ও হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ রংপুরের সন্তান। আমরা পার্টির চেয়ারম্যান জিএম কাদেরের সাথে আছি। যদি দল নিয়ে ষড়যন্ত্র চলতে থাকে, তবে আমরা আন্দোলন করে ষড়যন্ত্রকারীদের প্রতিহত করব।  

কেন্দ্রীয় জাতীয় পার্টির সাংগঠনিক সম্পাদক ও রংপুর জেলা জাতীয় পার্টির যুগ্ম সম্পাদক আব্দুর রাজ্জাক বলেন, যারা দলকে ভাঙ্গার ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছেন, আমরা তাদের সাথে নেই। অনেক সংগ্রাম ও ত্যাগে গড়া জাতীয় পার্টিকে কোন ক্রমে ধ্বংস হতে দেব না। বর্তমানে আমাদের ঐক্যবদ্ধ থাকার বিকল্প নেই। জাতীয় পার্টির যুগ্ম মহাসচিব ও রংপুর মহানগর জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক এসএম ইয়াসির আহমেদ বলেন, জাতীয় পার্টির প্রয়াত চেয়ারম্যান এরশাদ স্যার জিএম কাদেরকে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যানের দায়িত্ব দিয়ে গেছেন। এই দায়িত্বকে অবমাননা করার ক্ষমতা কারো নেই। যদি কেউ অবমাননা করে, তবে তিনি এরশাদ স্যারকে অবমাননা করবেন। গঠনতন্ত্র অনুযায়ী পার্টির চেয়ারম্যানই হবেন সংসদে বিরোধী দলীয় নেতা।

জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য, রংপুর মহানগর জাতীয় পার্টির সভাপতি ও রংপুর সিটি মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা বলেন, দলের মাঝে বিভেদ তৈরী হওয়া এটি অশনী সংকেত। রংপুরে রওশন এরশাদের কোন অস্তিত্ব নেই। জিএম কাদেরই হলো দলের চেয়ারম্যান। তৃণমূলসহ জাতীয় পার্টির সর্বস্তরের নেতাকর্মীরা জিএম কাদেরকে চেয়ারম্যান হিসেবে মানেন। তাকে গঠনতন্ত্র অনুযায়ী এরশাদ চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব দিয়ে গেছেন। জিএম কাদেরের নেতৃত্বে জাতীয় পার্টি সুষ্ঠুভাবে পরিচালিত হচ্ছে। দল নিয়ে ষড়যন্ত্র করা হলে তা মেনে নেয়া হবে না।