যৌন হয়রানির মামলায় তুরাগ বাসের চালকসহ ৩ জন রিমান্ডে

যৌন হয়রানির মামলায় তুরাগ বাসের চালকসহ ৩ জন রিমান্ডে

রাজধানীর উত্তরা ইউনিভার্সিটির এক শিক্ষার্থীকে যৌন হয়রানির চেষ্টার অভিযোগে তুরাগ বাসের চালকসহ তিনজনের তিনদিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। মঙ্গলবার আসামিদের ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করে ৭ দিন রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা গুলশান থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) তাপস কুমার ওঝা। এসময় আসামিদের আইনজীবী তানিয়া, ইকবাল ও হাতেম আলী আসামিদের রিমান্ড বাতিলের আবেদন করেন।

শুনানি শেষে মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট গোলাম নবী আসামিদের প্রত্যেকের তিনদিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন। এরা হলেন- হেলপার নয়ন, কন্ট্রাকটর মনির ও চালক রোমান। গত ২১ এপ্রিল দুপুর একটায় উত্তরা ইউনিভার্সিটির এক ছাত্রী বাসা থেকে ইউনিভার্সিটি যাওয়ার জন্য তুরাগ পরিবহনের একটি বাসে ওঠেন। নতুনবাজার স্টপেজে অধিকাংশ যাত্রী নেমে গেলে আসামিরা তার যৌন হয়রানির চেষ্টা করেন। পরে ওই ছাত্রী ইউনিভার্সিটির অন্য শিক্ষার্থীদের ঘটনা খুলে বললে বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা উত্তরা ইউনিভার্সিটির ক্যাম্পাস এলাকায় তুরাগ পরিবহনের ৩০-৪০টি বাস আটকে দেন। এ ঘটনায় ভিকটিমের স্বামী বাদী হয়ে তুরাগ থানায় এ মামলা দায়ের করেন।