যুক্তরাষ্ট্রে গুলিতে এক পুলিশ কর্মকর্তা নিহত, আহত ৬

যুক্তরাষ্ট্রে গুলিতে এক পুলিশ কর্মকর্তা নিহত, আহত ৬

যুক্তরাষ্ট্রের সাউথ ক্যারোলাইনায় বাড়ির ভিতর থেকে এক বন্দুকধারীর ছোড়া গুলিতে সাত পুলিশ কর্মকর্তা গুলিবিদ্ধ হওয়ার পর একজনের মৃত্যু হয়েছে।

বুধবার অঙ্গরাজ্যটির ফ্লোরেন্স শহরের কাছে এ ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স, বিবিসি।

স্থানীয় শেরিফ দপ্তরের সাহায্যের ডাকে সাড়া দিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়েছিল ফ্লোরেন্স শহর পুলিশ। ওই বাড়িতে এক বন্দুকধারী শিশুদের জিম্মি করে রাখে ও গোলাগুলির কারণে দুই ঘন্টা ধরে অচলাবস্থা চলে, পরে সন্দেহভাজন গুলিবর্ষণকারীর আত্মসমর্পণের মধ্য দিয়ে ঘটনার অবসান হয়, জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

আত্মসমর্পণের পর সন্দেহভাজনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তার পরিচয় প্রকাশ করা হয়নি এবং তার উদ্দেশ্যও পরিষ্কার নয়।

গোলাগুলির ঘটনা ও এটি কীভাবে শেষ হয়েছে তার বিস্তারিত জানা যায়নি।

এক সংবাদ সম্মেলনে ফ্লোরেন্সের কাউন্টি শেরিফ কেনি বুন জানিয়েছেন, শহরের পশ্চিম প্রান্তে ভিনটেজ প্লেস সাবডিভিশনে সার্চ ওয়ারেন্ট নিয়ে যাওয়ার পর তার বেশ কয়েকজন ডেপুটি হামলার মুখে পড়েন।

এতে তিন কাউন্টি শেরিফ ডেপুটি ও ফ্লোরেন্স শহর পুলিশের চার কর্মকর্তা গুলিবিদ্ধ হন, এদের মধ্যে শহর পুলিশের এক কর্মকর্তা মারা যান।

আহত ছয় কর্মকর্তার বিষয়ে বিস্তারিত জানা যায়নি; তবে তাদের মধ্যে কয়েকজনের আঘাত গুরুতর বলে কয়েকজন কর্মকর্তার কথায় ইঙ্গিত পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছে রয়টার্স।

কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, ‘মারাত্মক’ গুলিবর্ষণ চলতে থাকলে ‘একজন সক্রিয়’ গুলিবর্ষণকারীর উপস্থিতির খবর পেয়ে সেখানে বহু পুলিশ জড়ো হয়। আহতদের সরিয়ে নিতে আর্মাড পারসোনাল ক্যারিয়ার ব্যবহার করা হয়।

শেরিফ দপ্তরের মুখপাত্র মেজর মাইকেল নান জানিয়েছেন, বন্দুকধারীর সঙ্গে ওই বাড়িতে থাকা সব শিশু নিরাপদ আছে। এক টুইটে এ ঘটনায় এক পুলিশ কর্মকর্তা নিহত হওয়ায় গভীর শোক প্রকাশ করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।