মোশাররফ-শখের স্টার জনশাহ্

মোশাররফ-শখের স্টার জনশাহ্

বিনোদন প্রতিবেদক : মোশাররফ করিমের নাটক মানেই বিনোদনে ভরপুর প্যাকেজ। যদিও ইদানীং আগের চেয়ে সহনশীল হয়েই অভিনয় করছেন তিনি। এরই পরিস্ফুটন দেখা গেল এবারের ঈদের নাটকে। ঈদ উপলক্ষে শখকে নিয়ে তিনি ‘স্টার জনশাহ্’ নামে একটি নাটকে অভিনয় করেছেন। নাটকটি রচনা করেছেন জুয়েল এলিন ও পরিচালনা করেছেন শামস্ করিম। এর গল্পে দেখা যাবে, অভিনয়ই জনির ধ্যান-জ্ঞান। স্টার হওয়ার স্বপ্নে বিভোর সে। তাই নাম পরিবর্তন করে জনি থেকে রাখের জন শাহ্। দেশের নাট্যনির্মাতাদের ফোন করেই তার দিনের শুরু হয়। উদ্দেশ্য একটাই, সবার কাছে ক্যারেক্টার চাওয়া। এরইমধ্যে দু’একটা ছোটখাট চরিত্রে অভিনয়ও করেছে সে। জনির প্রেমিকা মিতু তার এই অবস্থা দেখে সদুপদেশ দেয় মঞ্চের সাথে যুক্ত হয়ে বেসিকটা শেখার জন্য। কিন্তু জনি সেই উপদেশ এক ফুৎকারে উড়িয়ে দেয়। তার কাছে মঞ্চ হচ্ছে সময় নষ্ট করার জায়গা। তার থিউরী হচ্ছে স্টার হতে এখন আর মঞ্চ লাগে না।  একদিন জনি নতুন নাটকের একটি স্টিল ছবি কুরিয়ারে মিতুর বাড়ীতে পাঠায়। মিতু তো ছবি দেখে রীতিমত অবাক। কারণ ‘আমি চোর’ লিখা একটি সাইনবোর্ড গলায় ঝুলিয়ে জন বসে আছে। আর পেছন থেকে দুটি লোমশ হাত তাকে ধরে রেখেছে। অতঃপর জানা গেল সে একটি ভদ্রগোছের চোরের কারেক্টার করেছে। দূর্ঘটনাবশতঃ মিশুর পুলিশ অফিসার বাবার চিঠির সাথে ওই ছবিটিও থানায় চলে যায়। এবং তার ছবিটি থানার ব্ল্যাকবোর্ডে চোরদের জন্য সংরক্ষিত স্থানে জায়গা পায়। একেই বলে কপালের ফের। যখন সে স্টার হবার স্বপ্নে বিভোর তখনই সে হয়ে গেল থানার তালিকা ভূক্ত স্টার ক্রিমিনাল। এভাবেই এগিয়ে যায় নাটকের গল্প। এতে জনি চরিত্রে মোশাররফ করিম ও মিতু চরিত্রে অভিনয় করেছেন শখ। নাটকটি আজ রাত ৭টা ৫০ মিনিটে বাংলাভিশনে প্রচার হবে।