মোজাফফর আহমদের প্রতি প্রধানমন্ত্রী ও স্পিকারের শ্রদ্ধা

মোজাফফর আহমদের প্রতি প্রধানমন্ত্রী ও স্পিকারের শ্রদ্ধা

মুজিবনগর সরকারের উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য ও ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টির (ন্যাপ) সভাপতি, সদ্য প্রয়াত অধ্যাপক মোজাফফর আহমদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী।

শনিবার বেলা ১১টায় মোজাফফর আহমদের মরদেহ জাতীয় সংসদ ভবনের দক্ষিণ প্লাজায় নিলে তাতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান তারা। এরপর সেখানে তার নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় আওয়ামী লীগের নেতারা উপস্থিত ছিলেন। এর আগে মরহুমের জীবন নিয়ে স্মৃতিচারণ করেন তার দীর্ঘ দিনের রাজনৈতিক সহকর্মীরা। বীর এ মুক্তিযোদ্ধার কফিন জাতীয় পতাকায় মোড়ানো ছিল।


শুক্রবার সন্ধ্যা ৭টা ৫০ মিনিটে শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন অধ্যাপক মোজাফফর আহমদ। তার বয়স হয়েছিল ৯৭ বছর।

অধ্যাপক মোজাফফর আহমদ মুক্তিযুদ্ধকালীন মুজিবনগর সরকারের ছয়জন উপদেষ্টার মধ্যে একজন ছিলেন। ব্রিটিশবিরোধী আন্দোলন, ভাষা আন্দোলন, স্বাধীনতা যুদ্ধে তার ভূমিকা অবিস্মরণীয়।

জীবন সায়াহ্নে এসে বারিধারার পার্ক রোডে মেয়ের বাড়িতে থাকতেন তিনি। গত ১৪ আগস্ট অধ্যাপক মোজাফফরকে অ্যাপোলো হাসপাতালে ভর্তি করা হয়, ছিলেন ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিটে (আইসিইউ)।

প্রবীণ রাজনৈতিক নেতা ন্যাপের (মোজাফ্ফর) সভাপতির মৃত্যুতে শোক ও গভীর দুঃখ প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এক শোক বিবৃতিতে মোজাফফরের দীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনে দেশের মহান স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধ এবং বিভিন্ন গণতান্ত্রিক আন্দোলনের ভূমিকার কথা স্মরণ করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি বলেন, দেশের প্রগতিশীল রাজনীতিতে তার অবদান জাতি চিরদিন শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করবে।

শোক বিবৃতিতে মরহুমের পরিবারের শোকাহত সদস্যদের প্রতি সমবেদনা জানান প্রধানমন্ত্রী এবং বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন তিনি।