মেসির বর্ষসেরায় প্রশ্ন তোলায় হতাশ ফিফা

মেসির বর্ষসেরায় প্রশ্ন তোলায় হতাশ ফিফা

ছবি:সংগৃহীত

রেকর্ড ষষ্ঠবারের মতো ফিফা বর্ষসেরার পুরস্কার হাতে তুলেছেন লিওনেল মেসি। এনিয়ে এক পক্ষ আর্জেন্টাইন তারকাকে প্রশংসায় ভাসিয়েছে। তবে এবারই প্রথমবার তার জয়ের প্রক্রিয়াকে অনেকেই বাঁকা চোখে দেখেছে। বিশেষ করে ফিফার ভোটিং পদ্ধতিতে ফাঁক ছিল বলে প্রশ্ন তোলা হয়েছে। কিন্তু এমন প্রশ্নে হতাশা প্রকাশ করেছে ফুটবলের সর্বোচ্চ এই সংস্থাটি।


গত সোমবার ইতালির মিলান শহরে ফিফার জমকালো অনুষ্ঠানে জুভেন্টাস তারকা ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো ও লিভারপুল ডিফেন্ডার ভার্জিল ফন ডাইককে পেছনে ফেলে বর্ষসেরার পুরস্কার দ্য বেস্ট জেতেন বার্সেলোনা অধিনায়ক মেসি। তবে এরপর থেকেই বিভিন্ন মাধ্যম থেকে সমালোচনার বাতাস শুরু হয়। খেলোয়াড় ও কোচ থেকে শুরু করে কয়েকজন দাবি করেন তাদের ভোট হিসাবে আনা হয়নি অথবা বদলে দেওয়া হয়েছে।

ফিফার গভর্নি বোর্ডের এক বিবৃতিতে এ প্রসঙ্গে বলা হয়, ‘ভোটিং প্রক্রিয়ার মাধ্যমে ফিফার পুরস্কার প্রদানের স্বচ্ছতার বিষয়ে মিডিয়ার প্রচুর রিপোর্ট হচ্ছে, এতে ফিফা হতাশা প্রকাশ করছে। এমন খবর অশোভন ও বিভ্রান্তিকর। প্রতিটি পুরস্কারের প্রক্রিয়ার জন্য একটি স্বতন্ত্র পর্যবেক্ষক দল তদারকি এবং নিরীক্ষণ করে থাকে।’

ফিফার বিবৃতিতে আরও জানানো হয়, মেম্বার অ্যাসোসিয়েশনগুলোকে ভোটের ফর্ম ‘হার্ডকপি’ ও ‘ইলেকট্রনিক্যালি’ দিতে বলা হয়েছে।

‘ভোট দেওয়ার জন্য অনুমোদিত ব্যক্তির স্বাক্ষরের পাশাপাশি লিখিত ফর্মটি অবশ্যই ওই অ্যাসোসিয়েশনের দায়িত্বপ্রাপ্ত ব্যক্তিদের দ্বারাও স্বাক্ষরিত হতে হবে।তাই একটা ভোট বৈধ হওয়ার জন্য অবশ্যই প্রয়োজনীয় স্বাক্ষরগুলো ও সদস্য অ্যাসোসিয়েশনটির স্ট্যাম্প সংযুক্ত থাকতে হবে।’

এরপরও কোনো ভুল হলে বা তা যদি ফলাফলে প্রভাব নাও ফেলে এটি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে ফিফার তরফ থেকে জানানো হেয়ছে।