মার্কিন হোমল্যান্ড সিকিউরিটি বিভাগের প্রধানের পদত্যাগ

মার্কিন হোমল্যান্ড সিকিউরিটি বিভাগের প্রধানের পদত্যাগ

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের হোমল্যান্ড সিকিউরিটি বিভাগের প্রধান কার্স্টজেন নিয়েলসন পদত্যাগ করেছেন। দেশটির প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিতর্কিত বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ সীমান্ত নীতি বাস্তবায়ন করেছিলেন এই কর্মকর্তা।

রোববার তার পদত্যাগের তথ্য নিশ্চিত করেছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। হোমল্যান্ড সিকিউরিটি বিভাগে কাজ করতে পারাকে নিজের জীবনের জন্য সম্মানজনক এক অধ্যায় বলে অভিহিত করেছেন তিনি।


সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে দেয়া এক টুইটে নিয়েলসেনের স্থলাভিষিক্ত হিসেবে দেশটির কাস্টমস অ্যান্ড বর্ডার প্রোটেকশন কমিশনার কেভিন ম্যাক আলিনানকে নিয়োগ দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন ট্রাম্প।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রস্তাবিত সীমান্ত প্রাচীর তৈরি ও অভিবাসী পরিবারগুলোকে আলাদা করার পেছনে নিয়েলসনকে দায়ী করা হয়। তবে পদত্যাগ পত্রে কোনো কারণ উল্লেখ করেননি তিনি। তিনি বলেন, এখনই সরে যাওয়ার উপযুক্ত সময়।

আরও পড়ুন : শুধু ছুঁয়ে দেখতে ব্যাংক থেকে ৬৯ কোটি টাকা তুললেন ধনকুবের

নিয়েলসন বলেছেন, আমি যখন দায়িত্ব নিয়েছিলাম, সেই সময়ের তুলনায় যুক্তরাষ্ট্র আজ নিরাপদ। হোমল্যান্ড সিকিউরিটি বিভাগের এই কর্মকর্তা এমন এক সময় পদত্যাগের ঘোষণা দিলেন যার কয়েকদিন আগে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প দেশটির দক্ষিণাঞ্চলের সীমান্ত এলাকা পরিদর্শন করে আসেন।

সম্প্রতি দেশটির দক্ষিণাঞ্চলের সীমান্ত দিয়ে চলাচল বন্ধ করে দেয়ার হুমকি দেন ট্রাম্প। কিন্তু এই সিদ্ধান্ত এখনও বাস্তবায়ন হয়নি। তবে মাদক পাচার ও চোরাচালান এবং অভিবাসীদের সীমান্ত পেরিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ ঠেকাতে মেক্সিকোকে এক বছরের সময় বেধে দিয়েছেন তিনি।