মাদক ৫ বছর আগে নিলেও সরকারি চাকরি নয়: ডিএমপি কমিশনার

মাদক ৫ বছর আগে নিলেও সরকারি চাকরি নয়: ডিএমপি কমিশনার

মাদকসেবী কারও সরকারি চাকরির সুযোগ নেই জানিয়ে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) কমিশনার মোহাম্মদ শফিকুল ইসলাম বলেছেন, আমরা এমন মেশিন কিনেছি, পাঁচ বছর আগে মাদক নিলেও ডোপ টেস্টে ধরা পড়তে হবে। আর মাদক নিলে সরকারির চাকরি করার কোনো সুযোগ নেই।

শনিবার (২ নভেম্বর) ঢাকায় শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘মাদক, জঙ্গিবাদ ও র‌্যাগিংবিরোধী সমাবেশে’ তিনি একথা বলেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. কামাল উদ্দিন আহাম্মদের সভাপতিত্বে সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত মহাপুলিশ পরিদর্শক (এসবি) কৃষিবিদ মীর শহীদুল হক, উপ-পুলিশ কমিশনার (সদরদফতর) আনিসুর রহমান, উপ-পুলিশ কমিশনার (তেজগাঁও বিভাগ) বিপ্লব বিজয় তালুকদার প্রমুখ।

শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে ডিএমপি কমিশনার বলেন, পাঁচ বছর আগে মাদক নিলেও খবর আছে। তাই তোমরা মাদককে না বলো। মাদক নিয়ে মা-বাবার স্বপ্ন নষ্ট করো না।

বুয়েট শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যার চার্জশিট প্রসঙ্গে ডিএমপি কমিশনার বলেন, আগামী সপ্তাহের কয়েক দিন পরেই চূড়ান্ত চার্জশিট জমা দেওয়া হবে। সবকিছু চূড়ান্ত করেছি। আইজিপি (ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়োরী) দেশে এলে এটা তাকে দেখিয়ে প্রকাশ করবো।

তিনি আরও বলেন, কারও আদর্শের সঙ্গে না মিললেই পিটিয়ে হত্যা করতে হবে? ভিন্ন আদর্শের হতেই পারে। জোর করে কাউকে আদর্শ শেখানো যায় না। সবাইকে মিলে-মিশে থাকতে হবে। কেউ বিশৃঙ্খলা করলে পুলিশকে জানাতে হবে। আইন নিজের হাতে নেওয়া যাবে না। ফাহাদ হত্যায় ২২ জনকে ধরলাম, এদের মধ্যে বুয়েট ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদকও আছেন। তার পাশে আজ কেউ নেই।

ধানমন্ডির জোড়া খুন প্রসঙ্গে ডিএমপি কমিশনার বলেন, খুনের আসল রহস্য দ্রুত বের হবে। আমরা অনেক দূর এগিয়ে গেছি।

জঙ্গিবাদ নির্মূল প্রসঙ্গে শফিকুল ইসলাম বলেন, বোমা মেরে মানুষ হত্যা করে বেহেশতে যাওয়ার চিন্তা ভুল। ইসলাম তরবারির মাধ্যমে প্রতিষ্ঠা হয়নি। আমাদের রাসুলল্লাহ (সা.) শান্তিপূর্ণভাবে ইসলাম প্রচার করেছেন। আমরা সবাই জঙ্গিবাদকে না বলে শান্তির বাংলাদেশ গড়বো।