ভিক্ষুকের বেশে খুলনায় পাটকল শ্রমিকদের ভুখা মিছিল

ভিক্ষুকের বেশে খুলনায় পাটকল শ্রমিকদের ভুখা মিছিল

খুলনা প্রতিনিধি : পাটের তৈরি চটের জামা গায়ে ভিক্ষুকের বেশে খুলনায় খাবারের থালা বাসন হাতে নিয়ে ভুখা মিছিল করেছে পাটকলের শ্রমিকরা। বকেয়া মজুরি ও মজুরি কমিশন গঠনসহ ১১ দফা দাবিতে রাষ্ট্রায়াত্ব আটটি পাটকলের শ্রমিকরা এ মিছিল করে। জুটমিল সিবিএ-ননসিবিএ ঐক্য পরিষদের উদ্যোগে মাসব্যাপী আন্দোলন কর্মসূচির অংশ হিসেবে কর্মবিরতির পাশাপাশি গতকাল বুধবার দুপুরে মহানগরীতে ভুখা মিছিল করে শ্রমিক-কর্মচারীরা।

প্লাটিনাম, ক্রিসেন্ট, খালিশপুর, দৌলতপুর ও স্টার জুট মিলের শ্রমিকরা হাতে থালা, বাসন ও ঘটিবাটি নিয়ে স্ব স্ব মিল থেকে ভুখা মিছিল শুরু করে। পরে মিছিলটি বিআইডিএস রোড, দৌলতপুর নতুন রাস্তা, বিএল কলেজ রোড, কাশিপুর ও লাল হাসপাতাল রোড ঘুরে ক্রিসেন্ট মিলের সামনে এসে শেষ হয়। এ সময় শ্রমিকদের দাবি আদায়ের নানা শ্লোগানের প্ল্যাকার্ডে বুকে ঝোলানো দেখা যায়। ভুখা মিছিল চলাকালে শ্রমিকরা নতুন রাস্তার মোড় রেল ক্রসিংয়ে খুলনা থেকে রাজশাহীগামী একটি ট্রেনে ব্যাপক ইটপাটকেল নিক্ষেপ এবং ট্রেনের গ্লাস ভাংচুর করে। তবে এ ঘটনায় ওই ট্রেনযাত্রী কেউ আহত হয়েছে কিনা জানা যায়নি।

 ভুখা মিছিল শেষে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে বক্তব্য রাখন- জুটমিল সিবিএ-ননসিবিএ ঐক্য পরিষদের কাযর্করী আহ্বায়ক সোহরাব হোসেন, সাবেক সিবিএ সভাপতি দীন মোহাম্মদ, প্লাটিনামের সাবেক সাধারণ সম্পাদক খলিলুর রহমানসহ বিভিন্ন পাটকলের সিবিএ নেতারা। শ্রমিক নেতারা জানান, ২৮ ও ২৯ জানুয়ারি পাটকল শ্রমিকরা ৪৮ ঘণ্টার রাজপথ রেলপথ অবরোধের কর্মসূরি পালন করবেন। এতে সব শ্রমিকদের উপস্থিত থাকার আহ্বান জানানো হয়েছে। বকেয়া মজুরি পরিশোধ, মজুরি কমিশন গঠন, মহার্ঘ ভাতা প্রদান, অবসরে যাওয়া শ্রমিকদের পাওনা পরিশোধসহ ১১ দফা দাবি দায়ের লক্ষ্যে ২০১৭ সালের ২৮ ডিসেম্বর থেকে কাজ বন্ধ করে কর্মবিরতি পালন করছে। তাদের দাবি বাস্তবায়ন না হওয়া পযর্ন্ত শ্রমিকরা কর্মবিরতি পালন করবে বলেও ঘোষণা দেওয়া হয়।